আগৈলঝাড়ায় ইউপি নির্বাচনে রোকেয়া পদক পেলেন গীতা মজুমদার

75
Spread the love

hgyবরিশাল প্রতিনিধি : ইউপি নির্বাচনে ২১৯ জন সাধারণ সদস্য প্রার্থীদের মধ্যে রোকেয়া পদকপ্রাপ্ত একমাত্র নারী প্রার্থী গীতা মজুমদার। আগৈলঝাড়ায় আসন্ন নির্বাচনে উপজেলার ১নং রাজিহার ইউনিয়নের সংরক্ষিত ৭, ৮ ও ৯নং ওয়ার্ডের বর্তমান সদস্য গীতা মজুমদার এবারে ৭নং ওয়ার্ড আহুতি বাটরা এলাকায় সাধারণ সদস্য পদে প্রতিদ্বন্দিতা করছেন। উপজেলার ৫টি ইউনিয়নের ৪৫টি ওয়াার্ডে সাধারণ সদস্য পদে ২১৯জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করলেও গীতা মজুমদার একমাত্র নারী প্রার্থী বলে নির্বাচন কমিশন সূত্রে জানা গেছে। ওই গ্রামের মৃত হরিমোহন মজুমদারের মেয়ে গীতা মজুমদার এইচএসসি পাশ করে সমাজসেবায় মনোনিবেশ করেন। তিনি এলাকায় দরিদ্র জনগোষ্ঠির শিক্ষাদানের জন্য প্রতিষ্ঠা করেন গীতা প্রি-ক্যাডেট স্কুল। এরপরেও থেমে থাকেনি তার পথ চলা। নারীদের ক্ষমতায়ন ও আত্মনির্ভরশীল করার লক্ষে মহিলা অধিদপ্তরের অধীনে ‘মুক্তি মহিলা সংস্থা’ প্রতিষ্ঠা করে সভানেত্রীর দায়িত্ব পালন করছেন। সমাজের অবহেলিত জনগোষ্ঠীর পাশে দাঁড়াতে গিয়ে বয়স পেরিয়ে যাওয়ায় আর সংসারী হতে পারেননি তিনি। দরিদ্র জনগোষ্ঠীর দাবির মুখে গত ইউপি নির্বাচনে সংরক্ষিত ৭, ৮ ও ৯নং ওয়ার্ডে নির্বাচন করে বিপুল ভোটে নির্বাচিত হন তিনি। সমাজ সেবায় বিশেষ অবদানের জন্য গত বছর নারী জাগরণের পথিকৃৎ বেগম রোকেয়া দিবসে জাতীয় পুরস্কারে ভূষিত হন গীতা মজুমদার। তিনি জানান, এবছর সাধারণ জনগণের দাবির কারণে ৭নং ওয়ার্ড থেকে মেম্বর পদে ফুটবল মার্কায় প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন তিনি। তবে তার পথ চলায় গতিরোধ করতে রেকর্ড সংখ্যক ৯জন প্রার্থী তার সাথে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। ওই ওয়ার্ডে মোট ভোটার সংখ্যা ২০৮৬ জন। অবাধ ও সুষ্ঠু নির্বাচন হলে গীতা সাধারণ জনগণের রায়ে বিপুল ভোটে নির্বাচিত হবেন বলে জানান।


Spread the love