আগৈলঝাড়ায় স্কুল ও কলেজছাত্রী অপহরণ : অপহৃতা উদ্ধার ও দুই অপহরণকারী জেলহাজতে

13
Spread the love

অপূর্ব লাল সরকার, আগৈলঝাড়া (বরিশাল) থেকে : বরিশালের আগৈলঝাড়ায় স্কুল ও কলেজের দুই ছাত্রী অপহরণের ঘটনায় দু’টি পৃথক অপহরণ মামলায় দুই অপহৃতা উদ্ধার ও দুই অপহরণকারীকে গ্রেফতার করেছে আগৈলঝাড়া থানা পুলিশ। গতকাল রবিবার সকালে উদ্ধারকারী ছাত্রী ও গ্রেফতারকারীদের বরিশাল আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে।
স্থানীয় ও মামলা সূত্রে জানা গেছে, আগৈলঝাড়া উপজেলার গৈলা গ্রামের সুশীল মন্ডলের ছেলে মৃত্যুঞ্জয় মন্ডল (২৪) একই উপজেলার মোল্লাড়াপাড়া গ্রামের কার্ত্তিক সরকার মেয়ে কলেজ ছাত্রী স্বর্ণা সরকার (১৭) কে তার বাড়ির সামনে থেকে গত ২৪ মার্চ অপহরণ করে নিয়ে যায়। অপহৃতা স্বর্ণা ডাসার সরকারি শেখ হাসিনা একাডেমী অ্যান্ড উইমেন্স কলেজের ছাত্রী।
গত ৩ এপ্রিল রাতে মৃত্যুঞ্জয় মন্ডলকে আসামী করে অপহৃতার পিতা কার্ত্তিক সরকার একটি অপহরণ মামলা করলে মামলার তদন্তকারী অফিসার এসআই নাসির উদ্দিন অভিযান চালিয়ে মৃত্যুঞ্জয় মন্ডলকে গ্রেফতার ও অপহৃতাকে উদ্ধার করেছে।
অপরদিকে একই উপজেলার বাশাইল গ্রামের শহীদ মৃধার মেয়ে বাশাইল মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ৯ম শ্রেণীর ছাত্রী তারিন খানমকে পার্শ্ববর্তী মাগুরা গ্রামের হারুন শিকদারের ছেলে আবির শিকদার গত ২৯ মার্চ অপহরণ করে নিয়ে যায়। আবির তারিনের বাবা শহীদুল মৃধা ও মা বিলকিস বেগমকে সরবতের সাথে চেতনানাশক দ্রব্য খাইয়ে অচেতন করে তাকে অপহরণ করে নিয়ে যায়। অপহৃতার মা বিলকিস বেগম বাদী হয়ে ১ এপ্রিল আগৈলঝাড়া থানায় এশটি অপহরণ মামলা দায়ের করেছেন। ৩ এপ্রিল রাতে আবির শিকদারকে মাদারীপুর থেকে গ্রেফতার ও অপহৃতাকে উদ্ধার করে আগৈলঝাড়া থানা পুলিশ।
এব্যাপারে আগৈলঝাড়া থানার অফিসার ইনচার্জ মো. গোলাম ছরোয়ার জানান, পৃথক দু’টি ঘটনায় দু’টি অপহরণ মামলায় আসামীদের গ্রেফতার ও অপহৃতাদের উদ্ধার করে রবিবার সকালে বরিশাল আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে। আদালতের নির্দেশে আসামীদের জেলহাজতে এবং অপহৃতাদের প্রাপ্তবয়স না হওয়াতে তাদেরকে সেফ কাস্টডিতে দেয়া হয়েছে।


Spread the love