আট ঘন্টা পর ট্রেন চালাচল স্বাভাবিক নাটোরে ট্রাক-ট্রেন সংঘর্ষ, দশজন আহত, গেটম্যান চাকুরীচ্যুত

46
Spread the love

NATORE_PIC_03.11.15-01নাটোর প্রতিনিধি : নাটোরে ট্রাক-ট্রেন সংঘর্ষের ঘটনায় দশ যাত্রী আহত হয়েছেন। আট ঘন্টা পর ট্রেন চালাচল স্বাভাবিক হয়। ঘটনার জন্য দায়ী গেটম্যানকে চাকুরীচ্যুত করা হয়েছে। স্থানীয় লোকজন জানান, সোমবার রাত একটার দিকে তেবাড়িয়া রেল ক্রোসিং এর গেট খোলা থাকায় চাঁপাই নবাবগঞ্জের সোনা মসজিদ থেকে নাটোরের দিকে আসা চিপ্স পাথর বোঝাই ট্রাক (চুয়াডাঙ্গা-ট-১১-০২১৩) এর সাথে ঢাকাগামী রংপুর এক্সপ্রেসের সংঘর্ষ হয়। এতে ট্রেনের ইঞ্জিনটি লাইনচ্যুত হয়ে পূর্ব দিকে একটি টিনের বাড়ির ওপর এবং পাথরের ট্রাকটি দুম্ড়ে-মুচ্রে রাস্তার পশ্চিমে খাদে পরে যায়। এতে রংপুর এক্সপ্রেসের দশ যাত্রী আহত হয়েছেন। নাটোর ফায়ার সার্ভিসের গাড়িতে আহতদের চিকিঃসার জন্য নাটোর আধুনিক হাসপাতরে নিয়ে যাওয়া হয়। আহতদের মধ্যে আঘাত গুরুতর হওয়ায় গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জ এলাকার মজিবর রহমান (৭৩) ও চান্দিরহাট এলাকার শাহিন (৫২) হাসপাতালে ভর্তি হলেও অন্যরা প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়ে চলে যান। রেল কর্তৃপক্ষ জানায় ট্রেনের গতি কম থাকায় আহতের সংখ্যা কম হয়েছে। স্থানীয়রা আরো জানান, ট্রেনের ইঞ্জিনটি লাইনচ্যুত হয়ে টিনের ঘেড়া একটি বাড়িতে গিয়ে ধাক্কা দিলেও সেখানে কোন হতাহতের ঘটনা ঘটেনি। ঘরের লোকজন সংঘর্ষের শব্দ পেয়ে দ্রুত ঘর থেকে বেড়িয়ে যাওয়ায় তারা সবাই প্রাণে রক্ষা পেয়েছেন। দূর্ঘটনার খবর পেয়ে রেলওয়ের পশ্চিম জোনের মহা-ব্যবস্থাপক খায়রুল আলম উদ্ধারকারী দল নিয়ে ভোর রাতেই নাটোরে আসেন। প্রায় ছয় ঘন্টা চেষ্টা করে রেল কর্মীরা লাইনচ্যুত ইঞ্জিনটিকে সকাল পৌনে আটটার দিকে লাইনে তুলে নাটোর ষ্টেশনে পাঠিয়ে দেন। রেল লাইন মেরামত হওয়ার পর নাটোর ষ্টেশনে অপেক্ষমান চিলাহাটি থেকে ছেড়ে আসা ঢাকাগামী নীল সাগর এক্সপ্রেস ট্রেনটি সকাল সাড়ে ন’টার দিকে প্রথম দূর্ঘটনা কবলিত এলাকা দিয়ে ঢাকায় রওনা হয়। দূর্ঘটনার পর থেকে ঢাকা সহ উত্তর ও দক্ষিণাঞ্চলের মধ্যে সব রেল যোগাযোগ বন্ধ থাকায় নীল সাগর এক্সপ্রেস, একতা এক্সপ্রেস, তিতুমীর এক্সপ্রেস, সীমান্ত, দ্রুতযান এক্সপ্রেস ও লালমনি এক্সপ্রেস সহ সকল লোকাল ট্রেন চলাচল বন্ধ ছিল। এতে করে বিভিন্ন রেল ষ্টেশনে আটকে পরা এসব ট্রেনের যাত্রীরা চড়ম ভোগান্তির শিকার হন। এদিকে রাতে রেলগেট বন্ধ না করায় দুর্ঘটনার পরপরই ষ্টেশন মাষ্টার অশোক কুমার চক্রবর্তি ঘটনাস্থলে গিয়ে গেটম্যান সুলতান মৃধাকে খুঁজে পান নাই। তার পর থেকেই সে পলাতক রয়েছে। এব্যাপারে সকাল ১০টার দিকে রেলওয়ের পশ্চিমাঞ্চল জোনের মহা-পরিচালক খায়রুল আলমের কাছে জানতে চাইলে তিনি ঘটনার জন্য দায়ী গেটম্যান সুলতাল মৃধাকে ইতোমধ্যেই চাকুরীচ্যুত করা হয়েছে বলে জানান।


Spread the love