ইসি গঠনে বিএনপির প্রস্তাব সহায়ক হবে : রাষ্ট্রপতি

205
Spread the love

অনলাইন ডেস্ক : রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ বলেছেন, নির্বাচন পরিচালনায় ইসির ভূমিকাই ‘মুখ্য’। আর শক্তিশালী নির্বাচন কমিশন গঠনে রাজনৈতিক দলগুলোর সঙ্গে আলোচনা, তাদের মতামত গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে। একটি শক্তিশালী নির্বাচন কমিশন ও সার্চ কমিটি গঠনের ব্যাপারে বিএনপি যেসসব প্রস্তাব পেশ করেছে সেগুলো সহায়ক হবে। রোববার সন্ধ্যায় ইসি গঠন নিয়ে বঙ্গভবনের দরবার হলে বিএনপির সঙ্গে প্রায় একঘণ্টার বৈঠক শেষে রাষ্ট্রপতির প্রেস সচিব মো. জয়নাল আবেদীন সাংবাদিকদের সামনে বৈঠকের বিভিন্ন বিষয় তুলে ধরেন। রাষ্ট্রপতির প্রেস সচিব বলেন, আমন্ত্রণে সাড়া দিয়ে বিএনপির প্রতিনিধি দল আলোচনায় অংশ নিতে আসায় রাষ্ট্রপতি শুরুতেই তাদের ধন্যবাদ জানান। রাষ্ট্রপতি আলোচনায় বলেন, আপনাদের মতামত পরবর্তী নির্বাচন কমিশন গঠনে ইতিবাচক অবদান রাখবে বলে আমি বিশ্বাস করি। যে কোন বিষয়ে আলোচনা ও মতবিনিময় সমাধানের বহুমুখী পথের সন্ধান দেয়। নির্বাচন কমিশন ও সার্চ কমিটি গঠনের প্রক্রিয়া নিয়ে তিনি একটি লিখিত প্রস্তাব আলোচনায় তুলে ধরেন। বিএনপি রাষ্ট্রপতির এ উদ্যোগের সফলতা কামনা করেছে এবং এ ব্যাপারে তাদের সার্বিক সহযোগিতা থাকবে বলে জানিয়েছে। সংসদের বাইরে থাকা বাংলাদেশ বিএনপির সঙ্গে আলোচনার মধ‌্য দিয়ে রোববার বিকেলে নতুন নির্বাচন কমিশন গঠন নিয়ে রাষ্ট্রপতির এই সংলাপ শুরু হয়। এর আগে, রোববার বিকেল ৪টা ২৭ মিনিটে বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার নেতৃত্বে বঙ্গভবনে পৌঁছায় বিএনপির প্রতিনিধি দল। এক ঘণ্টার বেশি বৈঠক শেষে ৫টা ৪০ মিনিটের দিকে তারা বঙ্গভবন ত্যাগ করেন। খালেদা জিয়ার নেতৃত্বে বিএনপির প্রতিনিধি দলে ছিলেন দলের মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন, ব্যারিস্টার মওদুদ আহমেদ, ব্যারিস্টার জমির উদ্দিন সরকার, তরিকুল ইসলাম, ড. মঈন খান, লেফটেন্যান্ট জেনারেল (অব.) মাহবুবুর রহমান, মির্জা আব্বাস, নজরুল ইসলাম খান, ব্যারিস্টার রফিকুল ইসলাম মিয়া, গয়েশ্বর চন্দ্র রায় ও আমির খসরু মাহমুদ চৌধুরী।


Spread the love