একাকীত্বের গল্প, এলোমেলো চিন্তা … পর্ব-২১

180
Spread the love

নয়ন বাবু : দিনশেষে আমি আবারো সম্পূর্ণ একা! এবং দিনশেষে আমি আবারো সম্পূর্ণ একা। আমি আর আমার কলম ছাড়া আর কেউই জানেনা তা। বেশিরভাগ মানুষেই আমাকে ছেড়ে চলে গিয়েছে হয় তারা আমাকে তাদের জীবন থেকে সরিয়ে দিয়েছে। না হয় আমি তাদের দূরে সরিয়ে দিয়েছি। দিনশেষে আমি আমাকে আবারো শূন্যতার মাঝেই খুঁজে পাচ্ছি। আমি কাউকেই দেখছি না আমার পাশে, যা আমি দেখছি শুধু আমার কান্না। আমি অনেক মানুষকে দেখেছি, অনেক মানুষ আমার জীবনে এসেছে। কিন্তু প্রয়োজন ফুরানোর পরে তারা কোন না কোন ভাবে আমার থেকে দূরে সরে গিয়েছে। তারা আমার জীবনে যা দিয়েছিল, তার থেকে বেশি কিছু নিয়ে গেল।
কিন্তু এখন আর একাকীত্ব আমাকে বিরক্ত করে না। এমনকি কোন কিছুই আমাকে আর কষ্ট দিতে পারে না। কারন আমি যন্ত্রনা পেতে পেতে আজ সম্পূর্ণ অনুভূতিশুন্য। এখন আর কেউ আমাকে কষ্ট দিতে পারেনা, কেউ আমাকে সুখী করতেও পারেনা। আমার মনে হয় আমিই এখন আমার সবকিছু নিয়ন্ত্রন করছি। আমার এখন আর শক্তি নেই অযথা সব অর্থহীন বন্ধুত্বের জন্য, আমি এখন আর সহজে বিশ্বাস করিনা কাউকে।
কিন্তু আমার ভেতরে এখন অনেক যন্ত্রনা জমা হচ্ছে। আমার মনে হচ্ছে আমি আর সহ্য করতে পারছি না। দিনদিন জমে থাকা যন্ত্রনা গুলো বয়ে বেড়াতে ভীষন কষ্ট হচ্ছে। সবকিছু খুব বেশি ভারি হয়ে আসছে। আমি সবকিছু ভুলে যেতে চাই, আমি একাকীত্বের মধ্যে চরম শান্তি খুঁজে পেতে চাই। আমার আর ভেতরে হাজারো কষ্ট লুকিয়ে রেখে সুখে থাকার অভিনয় করতে চাইনা। আমি চাই না কোন কিছু আমার আত্নাটাকে তিলে তিলে মেরে ফেলুক। আমি তোমাদের মত করে শান্তিতে ঘুমাতে চাই।
লেখক: নয়ন বাবু (সাংবাদিক)।


Spread the love