কক্সবাজারের সী ইন পয়েন্টে পচাঁ মাছের দুর্গন্ধে অতিষ্ট পর্যটকরা

90
Spread the love

Cox Picআমিনুল কবির,কক্সবাজার : কক্সবাজার শহরের অন্যতম পর্যটন বাণিজ্যিক এলাকা হোটেল মোটেল জোন সংলগ্ন সী-ইন পয়েন্টে  চলছে অস্বাস্থ্যকর ও দুর্গন্ধময় পচাঁ মাছ বিক্রির রমরমা ব্যবসা।
৭/৮টি পচাঁ মাছের ভ্যান ২৪ ঘন্টা ভয়াবহ দুর্গন্ধ ছড়াচ্ছে। অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে এলাকার আকাশ-বাতাস ভারি করে তুলছে। আর এতে পচাঁ মাছের দুর্গন্ধে অতিষ্ঠ হয়ে পড়েছেন অসহায় দেশী-বিদেশী পর্যটকসহ স্থানীয় ব্যবসায়ী ও বাসিন্দারা। এদিকে পচাঁ মাছের দুর্গন্ধ ছড়ালেও কোন ব্যবস্থা নিচ্ছে না কক্সবাজার পৌরসভা কতৃপক্ষ। স্থানীয় ব্যবসায়ীদের অভিযোগ,সী-ইন পযেন্টের রাস্তার পাশে গড়ে উঠা বেশ কয়েকটি ভ্যান গাড়ী নিয়ে পচাঁ মাছ বিক্রি করায় এ অবস্থার সৃষ্টি হয়েছে। ফলে এক দিকে হচ্ছে পরিবেশ দুষণ, অপর দিকে স্বাস্থ্য ঝুঁকিতে সাধারণ মানুষ ও পর্যটক।
সরেজমিনে দেখা যায়, সী-ইন পয়েন্টের প্রধান সড়কের দুই পাশে গড়ে উঠা ৭/৮ টি পচাঁ মাছ ফ্রাই করে বিক্রির করার ভ্যাান গাড়ী রাস্তার উপর বসিয়ে বিভিন্ন রকমের পচাঁ মাছকে ফ্রাই করে দেশী-বিদেশী পর্যটকে তাজা মাছ বলে বিক্রি করা হচ্ছে। ভ্যান গাড়ীসমূহে রাখা হয়েছে বিভিন্ন প্রজাতির এক সপ্তাহ আগের সামুদ্রিক পচাঁ মাছ। এসব পচাঁ মাছ পর্যটকদের ফ্রাই করে বিক্রি করা হচ্ছে। অস্বাস্থ্যকর খোলা এসব পচাঁ মাছের দুর্গন্ধে ভারি হয়ে উঠেছে সী-ইন পয়েন্টের আকাশ বাতাস। অথচ এর পশ্চিমে রয়েছে সমুদ্র সৈকত। পর্যটকসহ স্থানীয় অনেককেই দেখা যায় নাক চেপে দরে হাটতে। খোঁজ নিয়ে আরও জানা গেছে, রাস্তার পাশে গড়ে উঠা এসব ভ্রাম্যমান পচাঁ মাছের ভ্যানগাড়ী থেকে প্রতিদিন বিভিন্ন স্থরের নেতা ও স্থানীয় লোকজনকে টাকা দিতে হয়।  গুরুত্বপুর্ণ পর্যটন এলাকায় অবৈধভাবে গড়ে ওঠা এসব পচাঁ মাছের ভ্যানগাড়ী ভ্রাম্যমাণ ব্যবসায়ীদের বিরুদ্ধে অভিযান পরিচালনা করা হবে বলে জানিয়েছেন টুরিস্ট পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আলমগীর হোসেন


Spread the love