খোলা আকাশের নিচে পাঠদান ঠাকুরগাঁও পীরগঞ্জে ১০টি স্কুল

292
Spread the love

IMG_20151002_191633মোঃ তোফায়েল ইসলাম,ঠাকুরগাও প্রতিনিধি : ঠাকুরগাঁও পীরগঞ্জে ১০টি প্রাইমারি স্কুল ভূমিকম্পে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছিল। চার মাসেও স্কুল গুলো মেরামত না করায় শিক্ষার্থীদের ভোগান্তি পোহাতে হচ্ছে ।
কিছু দিন আগে  টানা বৃষ্টি অস্থায়ীভাবে বানানো টিনের চালাঘরে পানি ঢোকায় সেখানেও ক্লাস বন্ধ হয়ে গেছে।
জানা গেছে  গত ২৫ এপ্রিলে বিদ্যালয় গুলো ভূমিকম্পে ফাটল দেখা দেয়। ২৬ এপ্রিল বিদ্যালয়গুলো পরিদর্শনে গিয়ে ঐ শ্রেণীক্ষগুলো পরিত্যক্ত ঘোষণা করে বাইরে ক্লাস নেওয়ার নির্দেশ দেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার এবিএম ইফতেখারুল ইসলাম খন্দকার। গত সোমবার সরেজমিনে দেখা যায়, পীরগঞ্জ উপজেলার খামার সেনুয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়টির অফিস কক্ষে চতুর্থ শ্রেণীর, খোলা আকাশের নিচে পঞ্চম শ্রেণীর ও অফিস ভবনের বারান্দায় তৃতীয় শ্রেণির ক্লাস নিচ্ছে । পঞ্চম শ্রেণী পড়ুয়া আতিকা সুলতানা জানায়, সমাপনী পরীক্ষা কাছাকাছি। আর এই সময়ে খোলা আকাশের নিচে বৃষ্টির জন্য ক্লাস নিতে পারছেন না স্যাররা। পরীক্ষার প্রস্তুতি ভালো হচ্ছে না। অভিভাবক মোস্তফা আলম বলেন,”এভাবে কতদিন বাচ্চারা খোলা আকাশের নিচে ক্লাস করবে। “বিদ্যালয়ের কক্ষগুলো জরুরিভাবে মেরামত করা উচিৎ।” তিনি জানান, তার মেয়ে এবার সমাপনী পরীক্ষা দেবে। কিন্তু ঠিকমতো ক্লাস না হওয়ায় ওরা পিছিয়ে যাচ্ছে। বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক নাজমুন নাহার জানান, খোলা মাঠে ক্লাস নেওয়ার ফলে শিক্ষার্থীরা পড়ায় মনোযোগী হতে পারছে না। সমাপনী পরীক্ষায় এই বিদ্যালয় থেকে প্রতি বছর চার-পাঁচ জন শিক্ষার্থী বৃত্তি পায় বলে জানান বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো. জুয়েল। “কিন্তু বছরের প্রায় শুরু থেকেই স্কুলে অবকাঠামোগত ঝামেলার জন্য প্রস্তুতি ভালো হয়নি।” এ বিষয়ে উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা  অফিসার নজরুল ইসলাম জানান, ভূমিকম্পে ক্ষতিগ্রস্ত ১০টি স্কুলের তালিকা মন্ত্রণালয়ে পাঠানো হয়েছে। অনুদান এলে মেরামত করা হবে।

 


 


Spread the love