গাজীপুরে স্ত্রীকে পুড়িয়ে হত্যা

57
Spread the love

agunগাজীপুর প্রতিনিধি : গাজীপুরের কালিয়াকৈর উপজেলার পূর্ব চান্দরা দীঘিরপাড় এলাকায় পলি রানী গুপ্তা ওরফে তপসী দাস (২২) নামে এক গৃহবধূকে পুড়িয়ে হত্যা করেছে তার স্বামী সঞ্জয় কুমার দাস। রবিবার ভোরে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়। এর আগে শনিবার দিবাগত রাত আড়াইটার দিকে তাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। নিহত গৃহবধূ পলি রানী গুপ্তা ওরফে তপসী দাস (২২) কিশোরগঞ্জের ইটনা উপজেলার এলংজুরী গ্রামের পরেশ চন্দ্র গুপ্তের মেয়ে। এলাকাবাসী ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, তপসী দাস ৫/৬ বছর আগে কিশোরগঞ্জের ইটনা উপজেলার এলংজুরী গ্রামের জয় কুমার দাসের ছেলে সঞ্জয় কুমার দাসকে (২৬) ভালোবেসে বিয়ে করেন। তারা গাজীপুরের কালিয়াকৈর উপজেলার পূর্ব চান্দরা দীঘিরপাড় এলাকায় হাজী ফজলুল হকের বাড়িতে ভাড়া থাকতেন। সঞ্জয় চন্দ্রা পল্লী বিদ্যু‍ৎ এলাকার ইকুটেক্স নামের একটি পোশাক কারখানার কোয়ালিটি সেকশনে চাকরি করেন। পারিবারিক কলহের জের ধরে শনিবার রাত ১০টার দিকে সঞ্জয় কেরোসিন ঢেলে তাপসীর শরীরে আগুন ধরিয়ে দেন। এ সময় তাপসী চিৎকার করতে করতে ঘরের দরজা খুলে বাইরে বেরিয়ে এলে বাড়ির অন্য ভাড়াটিয়ারা পানি ঢেলে আগুন নিভান এবং তাকে উদ্ধার করে কালিয়াকৈর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যান। সেখানে শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য রাতেই ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে ভর্তি করা হয়। সেখান চিকিৎসাধীন অবস্থায় ভোরে মারা যান তাপসী। ঘটনার পর থেকে সঞ্জয় কুমার দাস পলাতক রয়েছেন।কালিয়াকৈর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আব্দুল মোতালেব বলেন, বিষয়টি তদন্ত করে দেখা হচ্ছে। গৃহবধূর স্বামীকে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।


Spread the love