গোলাপগঞ্জে গ্যাস সিলিন্ডার বিস্ফোরণে অগ্নিদগ্ধ হয়ে ১৪ দিন পর ১ জনের মৃত্যু

67
Spread the love

38934গোলাপগঞ্জ সিলেট প্রতিনিধি : সিলেটের গোলাপগঞ্জে জালিয়াতির সময় গ্যাস সিলিন্ডার বিস্ফোরণে অগ্নিদগ্ধ হয়ে ১৪ দিন পর একজন মারা গেছেন। অগ্নিদগ্ধ অপর ৩জন এখনো আশংকামুক্ত নন। মৃত্যুর সংবাদ পেয়ে গোলাপগঞ্জ মডেল থানা পুলিশ নিহতের লাশ ময়না তদন্তের জন্য সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করেছে। গত ১৮ সেপ্টেম্বর শুক্রবার উপজেলার রানাপিং তহিপুরে একটি ব্রীকস ফিল্ডে সংগঠিত গ্যাস সিলিন্ডার বিস্ফোরণে অগ্নিদগ্ধে ব্রীক ফিল্ডের নৈশ প্রহরী কানাইঘাট থানার লালারচক গ্রামের আখলিছ মিয়া (৫৫) গতকাল বৃহস্পতিবার দুপুরে মারা যান। তিনি গত প্রায় দু’সপ্তাহ ধরে ঢাকা মেডিকেলের বার্ন ইউনিটে চিকিৎসাধিন ছিলেন। গতকাল বৃহস্পতিবার সেখান থেকে তার শেষ ইচ্ছে পরিবারের সবার সাথে সাক্ষাতের উদ্দেশ্যে ঢাকা থেকে সিলেট আসার পথে তিনি মারা যান। উল্লেখ্য, ১৮ সেপ্টেম্বর তহিপুর ব্রীকস ফিল্ডে পরিত্যক্ত ঘরে ভরা এলপি গ্যাস সিলিন্ডার থেকে খালি গ্যাস সিলিন্ডারে গ্যাস ভরার সময় এ বিস্ফোরণ ঘটে। এসময় গ্যাস সিলিন্ডার বিস্ফোরণে জালিয়াতি কাজে নিয়োজিত শ্রমিক গোলাপগঞ্জ থানার রণকেলী গ্রামের রুবেল আহমদ (২৮) হাজীপুর গ্রামের স্বপন আহমদ (২৫) একই এলাকার সাগর আহমদ (৩৮) ও ব্রীকস ফিল্ডের নৈশ প্রহরী কানাইঘাট থানার লালারচক গ্রামের আখলিছ মিয়া (৫৫) অগ্নিদগ্ধ হন। তাৎক্ষণিক ফায়ার সার্ভিসের লোকজন আগুন নিয়ন্ত্রণে এনে ঘটনাস্থলকে নিরাপদ হিসেবে ঘোষণা করেন। ঘটনার পরপরই গোলাপগঞ্জ মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ (প্রশাসন) একেএম ফজলুল হক শিবলী, অফিসার ইনচার্জ (তদন্ত) জালাল উদ্দিন সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে উপস্থিত হন। তাৎক্ষণিক তারা জালিয়াতি ঘটনার সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগে এলপি গ্যাস সিলিন্ডারের ডিলার মেসার্স সুহেদ এন্টার প্রাইজের মালিক গোলাপগঞ্জ পৌর এলাকার রণকেলী দক্ষিণ ভাগের ফকির আলীর পুত্র সুহেদ আহমদ (৪২) কে ঘটনাস্থল থেকে আটক করেন। প্রথমে তাকে ৫৪ ধারায় কোর্টে চালান দেয়া হলেও পরে গোলাপগঞ্জ মডেল থানার সেকেন্ড অফিসার এসআই কাজী মুক্তাদির হোসেন বাদী হয়ে সুহেদ আহমদসহ আরো ক’জনকে আসামি করে এব্যাপারে গোলাপগঞ্জ মডেল থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। বর্তমানে ওই মামলায় কেবল সুহেদ আটক রয়েছেন। অন্যান্য আসামীরা এখনো পলাতক। গোলাপগঞ্জ মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ (প্রশাসন) একেএম ফজলুল হক শিবলী জানিয়েছেন, পুলিশ মামলার অন্যান্য আসামীদের ধরতে তৎপর রয়েছে। জানা যায়, দীর্ঘদিন থেকে একটি চক্র গোলাপগঞ্জ এলপি গ্যাস প্লান্টে উৎপাদিত এলপি গ্যাস সিলিন্ডার জালিয়াতির মাধ্যমে ভরা সিলিন্ডার থেকে খালি সিলিন্ডারে ভরে বিক্রি করে আসছিল। এ চক্রের অপকর্মে ইতোপূর্বে আরো একবার ২০১৩ সালে এভাবে সিলিন্ডার বিস্ফোরণ ঘটে, গোলাপগঞ্জ পৌর শহরের খাসিখাল ব্রিজ সংলগ্ন মেসার্স সুহেদ এন্টারপ্রাইজে। সে সময় সিলিন্ডার ভরার কাজে নিয়োজিত ৩ শ্রমিক একইভাবে অগ্নিদগ্ধ হয়ে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান। তারা হলেন, গোলাপগঞ্জ পৌর এলাকার রণকেলীর জাহিদ আহমদ (১৮) শ্যামল উদ্দিন (২২) ও ফজল আহমদ (২০)।


Spread the love