চট্টগ্রামে আবাসিক হোটেলে অভিযান, আটক ৩০ তরুণ-তরুণী

153
Spread the love

potevga1চট্টগ্রাম প্রতিনিধি : চট্টগ্রাম মহানগরীর পতেঙ্গা থানার আওতাধীন পতেঙ্গা সমুদ্রসৈকত এলাকার একটি আবাসিক হোটেলে অভিযান চালিয়ে ৩০ তরুণ-তরুণীকে আটক করেছে পুলিশ। দিনের বেলায় হোটেলের রুম ভাড়া নিয়ে অসামাজিক কার্যকলাপে লিপ্ত থাকার অভিযোগে এদের আটক করা হয়। শুক্রবার দুপুর থেকে বিকেল পর্যন্ত এই অভিযানে নেতৃত্ব দেন পতেঙ্গা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোহাম্মদ আলমগীর। আটককৃতদের মধ্যে ১৬ জন তরুণ এবং ১৪ জন তরুণী। পতেঙ্গা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোহাম্মদ আলমগীর জানান, পতেঙ্গা সমুদ্রসৈকত-সংলগ্ন এলাকার হোটেল সায়মা ইন্টারন্যাশনালে দীর্ঘদিন ধরে অসামাজিক কার্যকলাপ চলছিল বলে অভিযোগ পাওয়া যায়। এর পরিপ্রেক্ষিতে গোপন তথ্যে নিশ্চিত হয়ে শুক্রবার পুলিশ ওই হোটেলে অভিযান চালায়। অভিযানে হোটেলের বিভিন্ন কক্ষ থেকে অসামাজিক কার্যকলাপে লিপ্ত থাকা অবস্থায় ১৬ জন তরুণ এবং ১৪ জন তরুণীকে আটক করা হয়। পুলিশ জানায়, আটককৃতরা সমুদ্রসৈকতে বেড়াতে এসে ওই হোটেলে ঘণ্টা হিসেবে কক্ষ ভাড়া নিয়ে অসামাজিক কার্যকলাপে লিপ্ত হয়। অভিযোগ রয়েছে, ওই আবাসিক হোটেলটির মালিক নিজ উদ্যোগে এই অসামাজিক কার্যকলাপে তরুণ-তরুণীদের লিপ্ত হওয়ার সুযোগ দিয়ে প্রতিদিন হাজার হাজার টাকা আয় করে আসছেন। স্থানীয়দের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, ওই হোটেলের মালিক প্রতিদিন সকাল ১০টা থেকে রাত ১০টা পর্যন্ত ১২ ঘণ্টায় ১২ জোড়া তরুণ-তরুণীকে কক্ষ ভাড়া দিয়ে প্রতি ঘণ্টার জন্য ৫০০ থেকে ১ হাজার টাকা পর্যন্ত আদায় করেন। হোটেল মালিক শুধু একটি কক্ষ থেকেই দৈনিক আয় করেন ৫ থেকে ১০ হাজার টাকা পর্যন্ত। অতিরিক্ত এই অর্থের লোভে রীতিমতো অসামাজিক কার্যকলাপের বাজার খুলে বসেছিল হোটেল সায়মা ইন্টারন্যাশনাল। পতেঙ্গা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আলমগীর হোসেন জানান, পতেঙ্গা সৈকত এলাকায় কোনো অসামাজিক কার্যকলাপকে প্রশ্রয় দেওয়া হবে না। হোটেল সায়মা ইন্টারন্যাশনালের মালিকের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণের প্রক্রিয়া চলছে। অসামাজিক কার্যকলাপবিরোধী এই অভিযান অব্যাহত থাকবে।


Spread the love