চারদেশের মোটরযান চুক্তি অনুসমর্থনের প্রস্তাব মন্ত্রিসভায় অনুমোদন

125
Spread the love

8d12b196dabc208a1f35d629901d3ca9-Cabinetস্টাপ রিপোর্টার : বাংলাদেশ, ভুটান, ভারত ও নেপালের মধ্যে চলাচলের জন্য মোটরযান চুক্তি অনুসমর্থনের প্রস্তাব অনুমোদন করেছে মন্ত্রিসভা। আজ সোমবার (২৪ আগস্ট) সচিবালয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে মন্ত্রিসভার নিয়মিত বৈঠকে এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। পরে মন্ত্রিপরিষদ সচিব মোশাররাফ হোসাইন ভূইঞা সাংবাদিকদের এ কথা জানান। ১৫ জুন ভুটানের রাজধানী থিম্পুতে চার দেশের যোগাযোগ মন্ত্রীদের উপস্থিতিতে এ সংক্রান্ত চুক্তি সই হয়। আগামী ৮ ও ৯ সেপ্টেম্বর চার দেশের যুগ্ম সচিব পদমর্যাদার কর্মকর্তাদের উপস্থিতিতে ঢাকায় এ সংক্রান্ত একটি সভা হবে। এর পর এ বছরের অক্টোবরের কোনো এক সময় চার দেশের মধ্যে ‘কার র‍্যালি’ হবে। ওডিশার রাজধানী ভুবনেশ্বর থেকে র‍্যালিটি শুরু হবে। চট্টগ্রাম ও ঢাকা হয়ে র‍্যালিটি কলকাতায় গিয়ে শেষ হবে। আজকের সভায় অর্পিত সম্পত্তি প্রত্যর্পণ (সংশোধনী) আইন-২০১৫-এর খসড়া নীতিগত অনুমোদনের জন্য উঠলেও সভা থেকে তা ফেরত পাঠানো হয়েছে। এর আগেও মন্ত্রিসভা খসড়াটি ফেরত পাঠিয়েছিল। এ প্রসঙ্গে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রিপরিষদ সচিব বলেন, মন্ত্রিসভা মনে করে আইনটি আরও ভালোভাবে পরীক্ষা-নিরীক্ষা করা দরকার। এটি বহু দিনের পুরোনো সমস্যা যার শুরু হয়েছিল ১৯৫৯ সালে শত্রু সম্পত্তি আইন কার্যকর হওয়ার পর থেকে। তিনি বলেন, আইন মন্ত্রণালয়ের মতামত নিয়ে এই আইনটি আবার মন্ত্রিসভায় তোলা হবে। মন্ত্রিসভায় বাংলাদেশ পেট্রোলিয়াম করপোরেশন আইন-২০১৫-এর খসড়ার চূড়ান্ত অনুমোদন হয়েছে। করপোরেশনের পরিচালনা বোর্ডের সদস্য সংখ্যা বাড়ানো হয়েছে। নতুনভাবে যুক্ত হয়েছেন জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ মন্ত্রণালয়, বিদ্যুৎ বিভাগ ও অর্থ বিভাগের একজন করে প্রতিনিধি যারা কমপক্ষে যুগ্ম সচিব পদ মর্যাদার। আজকের সভায় বাংলাদেশ মহাকাশ গবেষণা ও দূর অনুধাবন প্রতিষ্ঠান (সংশোধন) আইন-২০১৫-এর চূড়ান্ত অনুমোদন হয়েছে। এই প্রতিষ্ঠানের পরিচালনা বোর্ডের সদস্য সংখ্যা ও তাদের যোগ্যতায় কিছু পরিবর্তন আনা হয়েছে।


Spread the love