জমির উপর থেকে আগ্রাসী হস্তক্ষেপ বন্ধ করুন: ভূমি মন্ত্রী

130
Spread the love

Land Zoning_2পাবনা প্রতিনিধি : ভূমি মন্ত্রী শামসুর রহমান শরীফ এম.পি. ভূমি বিনিয়োগকারী ব্যবসায়ীদের উদ্দেশে বলেন, জমির পরিমাণ বাড়ছে না অথচ জমিতে বিনিয়োগকারীদের প্রতিযোগিতায় ভূমিহীনের সংখ্যা দিন দিন বাড়ছে,  কোনোভাবেই তা কাম্য নয়। তিনি বলেন, জাতির মঙ্গলের জন্য জমির উপর থেকে বিনিয়োগকারীদের এধরনের আগ্রাসী মনোভাব বন্ধ করা উচিত।
আজ বুধবার পাবনা জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের সম্মেলন কক্ষে জাতীয় ভূমি জোনিং প্রকল্প, ভূমিমন্ত্রণালয় “ভূমি জোনিং” বিষয়ে জেলা পর্যায়ের কর্মশালায় ভূমি মন্ত্র¿ী এসব কথা বলেন। ভূমিমন্ত্রী বলেন, জমির সুষ্ঠু ও সর্বোত্তম ব্যবহার নিশ্চিত করতে ল্যান্ড জোনিং কার্যক্রম শুরু করেছি। তিনি বলেন, বন সংরক্ষণ, নদী সংরক্ষণ, জলাভূমি ও আবাদি জমি সুরক্ষা, পাহাড় সুরক্ষা, পরিবেশ ও নদী দূষণ রোধ, নদীর নব্যতা রক্ষা, নির্ধারিত স্থানে ইটের ভাটা স্থাপন, জলাবদ্ধতা দূরিকরণ, কৃষি, মৎস্য, শিল্প ও বাণিজ্যিক অবকাঠামো, পর্যটন জোনসহ জমির প্রতিটি ক্ষেত্রে সুষ্ঠু ও পরিকল্পিত ব্যবস্থাপনা নিশ্চিত করতে সরকার ইতোমধ্যে ল্যান্ড জোনিং কার্যক্রম শুরু করেছে। তিনি বলেন, ৪৩টি জেলায় ইতোমধ্যে ভূমি জোনিং কার্যক্রম চলছে। পর্যায়ক্রমে তা সারাদেশে প্রসার ঘটানো হবে। মন্ত্রী পাবনার ইছামতি নদী পুনরুদ্ধারে স্থানীয় জনগণ ও প্রশাসনকে তৎপর হওয়ার আহ্বান জানান। তিনি নদী, জলাশয় বা পুকুর ভরাট অথবা যত্রতত্র কোনো অবৈধ স্থাপনা না করার পরামর্শ দেন। এছাড়া তিনি জাতির মঙ্গল কামনায় সকলকে ঐক্যবদ্ধভাবে দেশের জন্য একটা সুন্দর পরিবেশ গড়ে  তোলার আহ্বান জানান। মন্ত্রী আরও বলেন, স্কুল, কলেজ, বিশ্ববিদ্যালয়ে অনেক কিছু শিখানো হয়, কিন্তু ভূমি সম্পর্কে আলাদা কোন বিভাগ বা পাঠ্যসূচি নেই। কীভাবে জমির হিস্যা, জমির নামজারী, জমাভাগ হয় তা সাধারণ মানুষ জানে না। এ তথ্যগুলো কোন পাঠ্যপুস্তকে উল্লেখ নেই। তিনি বলেন, ৯৫ ভাগ মানুষের জমিজমা সম্বন্ধে কোনো ধারণা নেই, তাই তিনি সংশ্লিষ্টদের জমি জমা সংক্রান্ত জটিল তথ্যাদি পাঠ্যপুস্তকে অন্তর্ভুক্ত করার বিষয়ে পরামর্শ দেন। জাতির জনক বঙ্গবন্ধু ও তাঁর পরিবারের সদস্যদের এ মাসের ১৫ আগস্ট নির্মমভাবে হত্যা ও ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলায় নিহতদের শোকের স্মরণে অনুষ্ঠানের শুরুতে এক মিনিট নীরবতা পালন করা হয়।
পাবনা জেলা প্রশাসক কাজী আশরাফ উদ্দীন এর সভাপতিত্বে এসময় অন্যান্যের মধ্যে জাতীয় ভূমি জোনিং প্রকল্পের প্রকল্প পরিচালক (অতিরিক্ত সচিব) কফিল উদ্দিন, পাবনা পুলিশ সুপার আলমগীর কবীর, সিনিয়র ল্যান্ড ইউজ প্ল্যানার সাখাওয়াত হোসেন, প্রকল্পের মৎস্য বিশেষজ্ঞ আবদুস সাত্তার, জেএসএন্ডআরএস বিশেষজ্ঞ মাহবুবুর রহমান প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।


Spread the love