জয়পুরহাটে আজাদ হত্যার প্রতিবাদে ও দোষীদের শাস্তির দাবীতে মানববন্ধন

65
Spread the love

vfrt1জয়পুরহাট প্রতিনিধি : জয়পুরহাট সদর উপজেলার ভাদশা ইউপি চেয়ারম্যান একে আজাদ হত্যার মূল আসামীদের এখনো ধরতে পারেনি পুলিশ। তার মৃত্যুর পরপরই আটককৃত ৬ জনের মধ্যে ২ জন বন্দুক যুদ্ধে নিহত হলেও ৪ জনের মধ্যে ৩ জন ম্যাজিষ্টেট আদালতে হত্যার দায় স্বীকার করে এবং জড়িতদের নাম বলে জবানবন্দী দিয়েছে। কিন্ত পুলিশ এখনো রাঘব বোয়ালদের গ্রেফতার করতে পারেনি। পুলিশের এমন ভূমিকায় এলাকাবাসী বুধবার দূর্গাদহ বাজারে জয়পুরহাট সদর উপজেলার ভাদসা ইউপি চেয়ারম্যান এ কে আজাদ হত্যার প্রতিবাদে ও দোষীদের শাস্তির দাবীতে মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশ করেছে স্থানীয়রা। সচেতন নাগরিক সমাজের আয়োজনে জয়পুরহাট-পাহাড়পুর সড়কের দুর্গাদহ বাজারে ঘন্টাব্যাপী মানবন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশে সাবেক উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান তিতাস মোস্তফার সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন নিহত চেয়ারম্যান এ কে আজাদের বড়ভাই মুকুল মাস্টার, ছোট ভাই স্বাধীন, বাংলাদেশের ওয়াকার্স পাটির কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য ও আক্কেলপুর উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান আনোয়ারুল ইসলাম বাবলু, আক্কেলপুর উপজেলা জাতীয় পাটির সভাপতি আবু ওহাব, জয়পুরহাট প্রেসকাবের যুগ্মসাধারন সম্পাদক আবদুল আলীম মন্ডল, স্থানীয় নাগরিক শফিকুল ইসলাম, জনি, শাহজাহানসহ অন্যরা। মানববন্ধনে সুশিল সমাজের প্রতিনিধি, ছাড়াও আশে পাশের কয়েকটি ইউনিয়নের কয়েক হাজার নারী পুরুষ অংশগ্রহন করেন। মানববন্ধনে বক্তারা অবিলম্বে প্রকুত অপরাধীদের গ্রেফতার করে শাস্তির দাবী জানান। পরে এক গনদোয়া অনুষ্ঠিত হয়। নিহতের বড়ভাই মুকুল মাস্টার বলেন, আদালতে আসামীরা ১৬৪ ধারায় জবানবন্দীতে হত্যার পরিকল্পনাকারী আওয়ামীলীগ ও যুবলীগের কয়েকজন নেতার নাম বললেও পুলিশ এখনো তাদের গ্রেফতার করতে পারেনি। তার ভাইয়ের হত্যার মূল হোতাদের অবিলম্বে গ্রেফতারের দাবীও জানান তিনি।


Spread the love