জয়পুরহাটে প্রেমিকাকে বেঁধে রেখে বিয়ের পিঁড়িতে প্রেমিক

55
Spread the love

39705জয়পুরহাট প্রতিনিধি : জয়পুরহাটের ক্ষেতলালে প্রেমিকাকে বেঁধে রেখে বিয়ের পিঁড়িতে বসেছে প্রেমিক নূর আলম, দিনব্যাপী পুলিশের অভিযানে উদ্ধার করা হয় প্রেমিকা নাজমা খাতুনকে। পুলিশ জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করেছে নূর আলমের মা কামরুন্নাহারকে। থানা ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার বিনাই গ্রামের ওমর আলীর পুত্র নূর আলম দীর্ঘদিন থেকে কালাই উপজেলার আওড়া গ্রামের আজিজার শাখিদারের অনার্স পড়ুয়া কন্যা নাজমার (২৫) সাথে প্রেম করে আসছিল। সোমবার সকালে প্রেমিক নূর আলমের অন্যত্র বিয়ের খবর পেয়ে প্রেমিকের বাড়িতে এসে নিজের বিয়ের দাবিতে অনশন শুরু করে প্রেমিকা নাজমা খাতুন। এদিকে প্রেমিকসহ তার পরিবারের পরিবারের লোকজন ও আত্মীয়স্বজন নাজমাকে ফিল্মী স্টাইলে প্রতিবেশি বাবুর বাড়ির দোতালায় মুখ বেঁধে রাখে। খবর পেয়ে স্থানীয় সাংবাদিকরা ঘটনাস্থলে গিয়ে মেয়েটির সাথে সাক্ষাৎ করতে চাইলে নূর আলমের মা কামরুন্নাহার ও খালা মেয়েটির উপস্থিতি অস্বীকার করে। কিন্তু গ্রামবাসী সাংবাদিকদের মেয়েটির অবস্থান নিশ্চিত করে। খবর পেয়ে ক্ষেতলাল থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়।
এসআই রশিদ ভদ্র ও নজরুল ইসলামের নেতৃত্বে অনেক নাটকীয়তার পর অবশেষে সন্ধ্যায় মেয়েটিকে উদ্ধার করে। পরে এবং প্রেমিকের মাকে পুলিশ জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করে। এ বিষয়ে ক্ষেতলাল থানার অফিসার ইনচার্জ মনিরুল ইসলাম ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, মেয়েটিকে উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসা হয়েছে। অভিযোগের ভিত্তিতে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।


Spread the love