দিনাজপুরে গৃহবধূকে পুড়িয়ে হত্যার অভিযোগ

108
Spread the love

mদিনাজপুর প্রতিনিধি: দিনাজপুরের নবাগঞ্জের পুটিমারা ইউনিয়নের সরাইপাড়া গ্রামে মনজিরা আক্তার মিতু (২৪) নামের এক গৃহবধূকে পুড়িয়ে হত্যার অভিযোগ উঠেছে। শুক্রবার (২৮ আগষ্ট) সকালে রংপুর মেডিকেল কলেজ (রকেম) হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মিতুর মৃত্যু হয়েছে। নিহত মিতু নবাবগঞ্জ উপজেলার পুটিমারা গ্রামে ইউনিয়নের সরাইপাড়া গ্রামের মঞ্জুর রহমানের স্ত্রী। মিতুর পিতা মাহবুবুর রহমান তার মেয়েকে হত্যা করা হয়েছে দাবি করে জানান, দীর্ঘদিন থেকে আমার মেয়েকে তার স্বামীর বাড়ির লোকজন নির্যাতন করতেন। আমার মেয়েকে তার ভবিষৎ এর কথা চিন্তা করে সকল কিছু সহ্য করে নিতে বলতাম। এরই ধারাবাহিকতায় আমার মেয়েকে বৃস্পতিবার রাতে পুড়িয়ে হত্যা করেছে। এদিকে মিতুর স্বামী মঞ্জুর স্ত্রী আত্মহত্যা করেছে এমন দাবি করে জানান, বৃহস্পতি রাতে স্ত্রী সাথে কথা কাটাকাটি হয়। এমন এক পর্যায়ে মিতু ঘরের ভেতর প্রবেশ করে দরজা বন্ধ করে দেয়। পরে মিতু তার শরীরে কেরোসিন ঢেলে আগুন ধরিয়ে দেয়। টের পেয়ে বাড়ির লোকজন দরজা ভেঙ্গে মিতুকে উদ্ধার করে রংপুর মেডিকেল কলেজ (রকেম) হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। পরে চিকিৎসাধীন অবস্থায় শুক্রবার সকালে তার মৃত্যু হয়। দিনাজপুর নবাবগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আমিরুল ইসলাম নিহতের বিষয়টি নিশ্চিত করেছে। তিনি জানান, এখন পর্যন্ত কোন ধরনের অভিযোগ পাওয়া যায়নি। তবে অভিযোগ পাওয়া গেলে তদন্ত সাপেক্ষে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।


Spread the love