দিনাজপুরে ১৩টি উপজেলায় চাউল এর দাম বৃদ্ধি

16
Spread the love

মোঃ আফজাল হোসেন দিনাজপুর প্রতিনিধি : পর্যাপ্ত মজুত ও সংকট না থাকার পরেও দিনাজপুরের ১৩টি উপজেলায় চালের বাজার আবারো অস্থির হয়ে উঠেছে। সাত দিনের ব্যবধানে প্রকারভেদে সব ধরণের চাল কেজিতে ৪ টাকা বেড়েছে। ৫০ কেজির বস্তায় ১৮০ টাকা থেকে ২০০টাকা। পর্যাপ্ত মজুত থাকার পরেও চালের দাম বৃদ্ধির কোনো যৌক্তিক কারণ নেই। এ নিয়ে গত কয়েক মাসে ৫ দফা চালের মূল্য বৃদ্ধি পেয়েছে। দুর্ভোগে পড়েছে সাধারণ মানুষ। চাল ব্যবসায়ীরা বলেছেন, মিল পর্যায়ে দাম বৃদ্ধির ফলে পাইকারি ও খুচনা বাজারে এর প্রভাব পড়েছে। বাজারে ধানের দাম বেশি এবং উৎপাদন ব্যয়ের কারণে চালের মূল্য বৃদ্ধি পেয়েছে দাবি মিল মালিকদের। দিনাজপুরের বাজারে আবারো চালের দাম বেড়েছে সাত দিনের ব্যবসধানে সব ধরনের চাল (৫০ কেজি) প্রতি বস্তায় বেড়েছে ১৮০-২০০ টাকা। চালের দাম প্রকারভেদ কেজিতে ৪ টাকা। প্রতিকেজি মিনিকেট আগে চিল ৪৬ টাকা বর্তমানে ৫০ টাকা, ভ্যারাইটি ২৮ ও ২৯ চাল টাকা এখন ৪৭ টাকাম স্বর্ণ ৩৫ টাকা ৩৯ টাকা, গুটিস্বর্ণ ৩৮ টাকা থেকে ৪২ টাকা চালের মূল্য বৃদ্ধির কারণে ভোগান্তিতে সাধারণ ও খেটে খাওয়া মানুষগুলো। এদিকে চালের মূল্যবৃদ্ধির মূল কারণ হিসেবে মিল মালিকদের সিন্ডিকেটকে দুষছেন পাইকার ও খুচরা বিক্রেতারা। জেলায় এবার ১ লক্ষ ৭১ হাজার হেক্টর জমিতে বোরো আবাদ হয়েছে। উৎপাদনের লক্ষমাত্রা ৭ লক্ষ মেট্রিক টন। তার পরেও দিনাজপুরের ১৩টি উপজেলায় চালের দাম বৃদ্ধি পেয়েছে।


Spread the love