দুই গোলেই গ্রুপ সেরা ইংল্যান্ড!

46
Spread the love

অনলাইন ডেস্ক : প্রতিপক্ষের জালে সাত গোল দিয়ে শেষ ষোল নিশ্চিত করেছে ইতালি। বেলজিয়ামও সমান সংখ্যক গোল করেছে গ্রুপ পর্বের তিন ম্যাচে। নেদারল্যান্ডস তো প্রতিপক্ষের জালে বল জরিয়েছে আটবার। শিরোপা প্রত্যাশী হিসেবে এবারের ইউরো শুরু করা এই তিনটি দল নামের প্রতি সুবিচার করে শীর্ষে থেকেই নকআউট পর্ব নিশ্চিত করেছে। মঙ্গলবার রাতে শীর্ষে থেকে নকআউট পর্ব নিশ্চিত করেছে ইংল্যান্ডও। তবে সেটা তিন ম্যাচ খেলে প্রতিপক্ষের জালে মাত্র দুবার বল জড়িয়ে!
হ্যারি কেইন, মার্কোস রাশফোর্ড, রাহিম স্টার্লিং, ফিল ফোডেন, জ্যাডন সানচোর, বুকায়ো সাকাদের মতো দারুণ সব তারকাদের নিয়ে সাজানো ইংল্যান্ডের আক্রমণভাগ। যেখানে প্রতিপক্ষকে মুড়িমুড়কির মতো গোল দেয়ার কথা কেইনদের, সেখানে গ্রুপ পর্বে মাত্র দুই গোল অপ্রত্যাশিতই বটে। এতসব তারকাদের ভিড়ে এখন পর্যন্ত এক স্টার্লিংই গোলখাতায় নাম তুলতে পেরেছেন। প্রথম তার গোলেই ক্রোয়েশিয়াকে হারায় ইংলিশরা। চেক রিপাবলিকের বিপক্ষেও এই সিটি তারকার গোলে চড়েই জয় দেখে ইংল্যান্ড।
লন্ডনের ওয়েম্বলি স্টেডিয়ামে ম্যাচের ২ মিনিটেই রাহিম স্টার্লিংয়ের নেয়া একটি শট গোলপোস্টে লেগে ফিরে আসে। সেই হতাশায় বেশিক্ষণ পুড়তে হয়নি তাকে। ১২ মিনিটেই দলকে স্বস্তির গোলটি এনে দেন তিনি। ডান প্রান্ত দিয়ে ইংল্যান্ড উইঙ্গার বুকায়ো সাকা দারুণ এক দৌড়ে বল নিয়ে যান চেকদের বিপদসীমায়। তার ক্রস থেকে বাঁ প্রান্তে বল পেয়ে যান মিডফিল্ডার জ্যাক গ্রিলিশ। অ্যাস্টন ভিলা তারকার বাতাসে ভাসানো বলে হেড করে ১২ মিনিটে গোল এনে দেন স্টার্লিং।
ম্যাচ শুরুর আগেই শেষ ষোলর টিকিট প্রায় নিশ্চিত ছিল ইংল্যান্ডের। স্টার্লিংয়ের সেই গোলের তাই নির্ভার হয়ে খেলতে থাকে থ্রি লায়ন্সরা। কেইনদের তেড়েফুঁড়ে না খেলাই সে কথা বলছে। পুরো ম্যাচে গোলের জন্য দলটা শট নিয়েছে মাত্র পাঁচবার, এর মধ্যে গোলমুখে শট রাখতে পেরেছে তিনটি। যদিও আরেকটু সুবিধায় থেকে ইংল্যান্ড ম্যাচটা শেষ করতে পারত, যদি না প্রথমার্ধ শেষের ৫ মিনিট আগে অফসাইডের কারণে জর্ডান হেনডারসনের গোল বাতিল হতো
ইংল্যান্ডের কাছে হারে দুইয়ে থাকা চেক রিপাবলিক তিনে থেকে ‘ডি’ গ্রুপের খেলা শেষ করল। তাদের সংগ্রহ ৪ পয়েন্ট। তাতে ছয় গ্রুপের তৃতীয় হওয়া ছয় দলের মধ্যে সেরা চার দলের তালিকায় থেকে শেষ ষোলোয় ওঠার সম্ভাবনা টিকে রইল চেকদেরও।


Spread the love