নাঙ্গলকোটে ফের বন্যা; পানিবন্দি ১ লাখ মানুষ

103
Spread the love

Cox Pic (10)মো. আলাউদ্দিন, কুমিল্লা প্রতিনিধি: কুমিল্লার নাঙ্গলকোটে আবারও বন্যার সৃষ্টি হয়েছে। মাঝে কয়েকদিন বিরতির পর গত ৩ দিনের অবিরাম বৃষ্টিতে এ বন্যার সৃষ্টি হয়। এতে করে নাঙ্গলকোট পৌরসভাসহ উপজেলার ১২টি ইউনিয়ের প্রায় অধিকাংশ গ্রাম প্লাবিত হয়েছে। পানিবন্দি হয়ে পড়েছে উপজেলার প্রায় ১ লাখ মানুষ। তলিয়ে গেছে মাঠের পাঁকা আউশ ধান, আমন বীজতলা ও শাক-সবজি ক্ষেত। ভেসে গেছে অসংখ্য পুকুর ও মৎস্য প্রজেক্টের লাখ লাখ টাকার মাছ। অবিরাম বৃষ্টিতে পানি বাড়তে থাকায় মানুষের দুর্ভোগ আরো বৃদ্ধি পাচ্ছে। উপজেলার ওপর দিয়ে বয়ে যাওয়া ডাকাতিয়া নদীর পানি আবারও বিপদসীমার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। প্রবল বর্ষণে অধিকাংশ গ্রামীণ সড়ক পানির নিচে তলিয়ে গেছে। ভেঙ্গে পড়েছে যোগাযোগ ব্যবস্থা। এতে সড়কগুলোতে যানবাহন চলাচল বন্ধ হয়ে গেছে। ফলে উপজেলাবাসীকে যাতায়াতে চরম দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে। এ অবস্থায় পানিবন্দি পরিবারগুলোকে মানবেতর জীবনযাপন করতে হচ্ছে। জানা গেছে, গত কয়েকদিনের টানা বর্ষণে নদীর পানি বেড়ে যাওয়ায় নাঙ্গলকোট পৌরসভার ভূমি অফিস ও পুরাতন হাসপাতাল সংলগ্ন এলাকা, দাউদপুর, সাতবাড়িয়া ইউপির অষ্টগ্রাম, আলিয়ারা, তপোবন, সাধনপুর, খাড়োরা, পাইয়ারা, আদ্রা ইউপির শাকতলী, আদ্রা, তুগুরিয়া, পুজকরা, জোড্ডা ইউপির বাহুড়া, বাইয়ারা, ভবানীপুর, দৌলখাঁড় ইউপির দৌলখাঁড়, চাঁন্দগড়া, মৌকারা ইউপির করাকোট, পৌচির, মোগরা গ্রামসহ উপজেলার প্রায় অধিকাংশ গ্রাম প্লাবিত হয়েছে। এতে করে উপজেলার ১ লক্ষাধিক মানুষ পানিবন্দি হয়ে পড়েছে।


Spread the love