নেতিবাচক চিন্তা থেকে বের হতে চান মাশরাফি

69
Spread the love

ss-11ক্রীড়া প্রতিবেদক : আমাদের মধ্যে বাজে চিন্তা আছে। আমরা খুব দ্রুত একজনকে দলে নেই। আবার দ্রুত বাদ দিয়ে দেই। আমাদের প্রফেশনাল হতে হবে। যাকে দলে নেওয়া হবে তাকে যথেষ্ট সুযোগ দিতে হবে। শনিবার ম্যাচ শেষে লিটন কুমার দাসকে নিয়ে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টি দলের অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজা এ কথা বলেন। এ বছরই জাতীয় দলে লিটন কুমার দাসের অভিষেক। ঘরোয়া লিগে দারুণ পারফরম্যান্স করে আসা এই ব্যাটসম্যান ওয়ানডেতে ৭ ম্যাচে করেছেন মাত্র ১০০ রান। গড় রান ১৬.৬৬। সর্বোচ্চ রান ৩৬। জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে প্রথম ওয়ানডেতে প্রথমবারের মতো ওপেনিংয়ে নামেন লিটন। ঘরোয়া ক্রিকেটে ইনিংসের সূচনা করার অভিজ্ঞতা আছে তার। তবে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে প্রথমবারের মতো ইনিংসের গোড়াপত্তন করতে নেমে রানের খাতাই খুলতে পারেননি। পয়েন্ট ও কাভারের ওপর দিয়ে উঠিয়ে মারতে গিয়ে ক্যাচ তুলে দেন লিটন। সৌম্যর ইনজুরিতে ওপেনিংয়ে ব্যাটিংয়ে নামার সুযোগ পান তিনি। তবে এ সুযোগ কাজে লাগাতে না পারার আক্ষেপে পুড়তে হচ্ছে তাকে। ম্যাচ শেষে মাশরাফি জানান, দ্রুত সময়ে কোনো ক্রিকেটার সম্পর্কে ধারণা করা বোকামি।একই সঙ্গে যেকোনো ক্রিকেটারকে পর্যাপ্ত সুযোগ ও সময় দেওয়ার পক্ষে তিনি। এজন্য নিন্দুকের বাজে কথায় কান দিতে চান না টাইগার দলপতি। লিটনের ওপর পূর্ণ আস্থার কথা জানিয়ে মাশরাফি বলেন, আমি বিশ্বাস করি, এই লেভেলে লিটন খুব ভালো খেলোয়াড়। আমার বিশ্বাস, সে পরের ম্যাচে কামব্যাক করবে । সে ম্যাচেও যদি না পারে পরের ম্যাচে করবে। অবশ্যই ওর সক্ষমতা আছে এই লেভেলে খেলার। সমালোচনা করার চেয়ে আত্মবিশ্বাসী করে তোলার ওপর গুরুত্ব দিয়েছেন মাশরাফি। বড় স্কোর করার ক্ষেত্রে লিটনের আত্মবিশ্বাসের ঘাটতি দেখছেন তিনি। এজন্য আত্মবিশ্বাস ও সাহস দেওয়ার পক্ষে দলপতি। মাশরাফির ভাষায়,পর্যাপ্ত আত্মবিশ্বাস না থাকায় হয়ত বড় রান পাচ্ছে না। আমরা চেষ্টা করছি তাকে আত্মবিশ্বাসী করার। ও বাংলাদেশের জন্য বড় খেলোয়াড় হবে, আমি সবসময় এটা বিশ্বাস করি।


Spread the love