নড়াইল পৌরসভার ভারপ্রাপ্ত মেয়র কারাগারে

121
Spread the love

2800নড়াইল প্রতিনিধি : নড়াইল পৌরসভার ভারপ্রাপ্ত মেয়র মোস্তফা কামালকে মাদক মামলায় কারাগারে পাঠিয়েছেন আদালত। আজ সোমবার (২৪ আগস্ট) বিকেল ৫টার দিকে আদালতে হাজির করলে সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আবু ইব্রাহিম তাকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন। তিনি নড়াইল পৌরসভার ভারপ্রাপ্ত মেয়র এবং পৌর এলাকার মালেক সরদারের ছেলে। যশোর কোর্ট পুলিশের ইন্সপেক্টর রেজাউল হোসেন বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, রোববার (২৩ আগস্ট) দিনগত রাত পৌনে ১২টার দিকে যশোর-বেনাপোল সড়কের চাঁচড়া চেকপোস্ট এলাকা থেকে তাকে আটক করে সোমবার বিকেলে আদালতে পাঠালে বিচারক কারাগারে পাঠানোর নিদেশ দেন। পরে সন্ধ্যায় তাকে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। যশোর কোতোয়ালি মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শিকদার আককাস আলী জানান, বেনাপোল থেকে মাইক্রোবাসে অস্ত্র ও ফেনসিডিলের চালান যশোরে আসছে এমন গোপন সংবাদের ভিত্তিতে কোতোয়ালি থানা পুলিশ শহরের চাঁচড়ায় চেকপোস্ট বসায়। রাত পৌনে ১২টার দিকে সন্ধেহজনকভাবে নড়াইল পৌরসভার ভারপ্রাপ্ত মেয়র মোস্তফা কামালের বহনকারী মাইক্রোবাসটি গতিরোধ করে তল্লাশি করে। এ সময় টু-টু বোরের রাইফেল ও দুই বোতল মদ উদ্ধার করা হয়। তবে, পুলিশের কাছে ভারপ্রাপ্ত মেয়র অস্ত্রের লাইসেন্স’র কাগজপত্র দাখিল করেন। এ ঘটনায় পুলিশ বাদী হয়ে মাদক মামলা করে তাকে আদালতে পাঠায়। সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, নড়াইল পৌরসভার নির্বাচিত মেয়র বিএনপি নেতা জুলফিকার আলী নাশকতার মামলায় জেলে থাকায় গোলাম মোস্তফা ভারপ্রাপ্ত মেয়র হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন। আর তাকে বহনকারী গাড়িটি পৌরসভার। প্রায় প্রতিদিন সন্ধ্যায় ওই গাটিতে চড়ে ভারপ্রাপ্ত মেয়র মোস্তফা ‘বিশেষ কাজে’ ভারতীয় সীমান্ত এলাকা বেনাপোলে যাতায়াত করতেন।


Spread the love