পানিশূন্য ইছামতি নদী বগুড়া’য় হারিয়ে যাচ্ছে দেশীয় প্রজাতির মাছ

85
Spread the love

bdআল আমিন মন্ডল, বগুড়া : বগুড়া জেলাসহ গাবতলীতে অনুকুল পরিবেশের অভাব ও নদ-নদী জলাশয়গুলো শুকিয়ে যাওযায় হারিয়ে যাচ্ছে নানা প্রজাতির দেশীয় প্রজাতির মাছ। ফলে প্রতিবছরে গাবতলীতে মোট চাহিদার ২৫শতাংশ মাছের ঘাটতি থেকে যাচ্ছে। তথ্যাসন্ধানে জানাযায়, গাবতলী উপজেলার বিভিন্ন এলাকাগুলোতে অধিক পরিমানে অভয়াশ্রম তৈরি করা হলে বিলুপ্ত হওয়া প্রায় দেশীয় প্রজাতির মাছের বংশ বিস্তারের পাশাপাশি ঘাটতি পুরন করা সম্ভব হবে। ইতিমধ্যে খালবিল নদীনালা থেকে হারিয়ে গেছে বাইম, মাগুর, কৈ, শৈল, ফলই, খলিসা, বেলে, চাঁন্দা, পাবদা, পুঁটি, টেংরা, রইনা, মলুঙ্গি, বাটা, কালবাউশ, আইড়, বাঁশপাতা, গুলশা, চেলা, টাকিসহ অসংখ্যা দেশীয় প্রজাতির মাছ। আবাসস্থল ও প্রজন্ন ক্ষেত্র সংকচিত এবং অনুকুল পরিবেশের অভাবে বিলুপ্তির পথে দেশীয় প্রজাতির অনেক মাছ। ফলে হাটবাজারে দেশীয় প্রজাতির মাছের আকাল হয়ে পড়েছে। ফলে বাজারে বেড়েছে অন্যান্য প্রজাতির মাছের দাম। এদিকে ঐতিহাসিক ইছামতি নদী শুকিয়ে যাওয়ায় এখন শীতকালিন সবজি, বেগুন, ভূষ্টা, কলাসহ নানা প্রকার চাষবাদ করা হচ্ছে। গাবতলী উপজেলা মৎস্য কর্মকতা আরিফ আহম্মেদ জানান, দেশীয় প্রজাতির মাছ রক্ষার জন্য মৎস্যচাষীদের প্রশিক্ষণ ও পরামর্শ দেওয়া হচ্ছে।


Spread the love