প্রতারনা ও জালিয়াতি মামলায় গুরুদাসপুরের আ’লীগ নেতা ১১দিন ধরে কারাগারে

91
Spread the love

Gurudaspur pic-06-11-2015গুরুদাসপুর নাটোর প্রতিনিধি : শিক্ষক নিয়োগের নামে প্রতারনা করে প্রার্থীর নিকট থেকে টাকা নিয়ে আত্মসাতের অভিযোগে নাটোরের গুরুদাসপুর উপজেলা আওয়ামীলীগের সাবেক ভারপ্রাপ্ত সভাপতি ও উপজেলার পোয়ালশুড়া পাটপাড়া বহুমুখী উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আজিজুল হক মাষ্টার ১১দিন ধরে কারাগারে আটক আছেন।
মামলার নথি ও বাদীর তথ্য মতে জানা গেছে, আওয়ামীলীগের ওই নেতা দীর্ঘদিন যাবৎ পোয়ালশুড়া পাটপাড়া বহুমুখী উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক পদে চাকরি করার সুবাদে বিভিন্ন সময় শিক্ষক-কর্মচারী নিয়োগ সংক্রান্তে প্রতারনা করে প্রার্থীদের নিকট থেকে টাকা নিয়ে আত্মসাৎ করেন। ওই শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে সহকারী শিক্ষকের কোনো পদ শূন্য না থাকা সত্বেও শাখা অনুমোদনের ভূয়া কাগজপত্র তৈরী করে সেলিম রেজা নামের একজনকে সহকারী শিক্ষক পদে অবৈধভাবে নিয়োগ দিয়ে বিনিময়ে ৫লাখ টাকা নিয়ে আত্মাসাৎ করেন। পরে অবৈধভাবে নিয়োগকৃত ওই সহকারী শিক্ষক এমপিওভুক্ত না হওয়ায় তার বেতন ভাতাদী থেকে বঞ্চিত থাকেন। বেতন ছাড়া চাকরিরত ওই শিক্ষক বারবার ওই প্রধান শিক্ষকের কাছে প্রদত্ত টাকা আদায়ে ব্যর্থ হয়ে গত বছরের ২২ ফেব্র“য়ারী নাটোর বিজ্ঞ জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট আদালতে একটি প্রতারনা ও জালিয়াতি মামলা দায়ের করেন। মামলাটি নাটোর ডিবি পুলিশ তদন্ত করে তার বিরুদ্ধে চার্জশীট দাখিল করেন। অভিযুক্ত প্রধান শিক্ষক আওয়ামীলীগ নেতা আজিজুল হক মাষ্টার গত ২৭ অক্টোবর মঙ্গলবার তার বিরুদ্ধে দায়েরকৃত মামলায় হাজিরা দিয়ে জামিনের আবেদন করলে বিজ্ঞ বিচারক তার জামিন না মঞ্জুর করে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন। এরপর ১২দিন কারাগারে অতিবাহিত হলেও ওই আওয়ামীলীগ নেতার জামিন মঞ্জুর হয়নি। ওই প্রধান শিক্ষকের জামিন বারবার না মঞ্জুর হওয়ায় তার জুমাইনগর গ্রামে মিষ্টি বিতরন করেছে এলাকাবাসী।


Spread the love