ফুটবল খেলাকে কেন্দ্র করে উভয় পক্ষের অন্তত ২০ জন অাহত

62
Spread the love

indexআরিফ হাসান, ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধি : ঠাকুরগাঁওয়ে  ফুটবল খেলাকে কেন্দ্র করে দুই  গ্রাম বাসীর মধ্যে সংঘর্ষ। এতে উভয় পক্ষের অন্তত ২০ জন অাহত হয়েছেন। গত শুক্রবার ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলার ৩ নং অাকচা ইউনিয়নের বৈকুন্ঠপুর ও ১২ নং সালন্দর ইউনিয়নের দেওগাঁও এলাকার মধ্যে ফুটবল খেলাকে কেন্দ্র করে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষে হয়।  এতে তুচ্ছ বিষয় নিয়ে কথা কাটাকাটি ও ধস্তাধস্তি হয়। পরের দিন দেওগাঁও এলাকার  মাসুদ নামে এক ব্যক্তি ফারাবাড়ি হাটে গেলে বৈকুন্ঠপুরেরর লোকজন ক্ষিপ্ত হয়ে মাসুদ কে পিটিয়ে রক্তাক্ত করে অাটকিয়ে রাখে। এতে বৈকুন্ঠপুর এলাকার লোকজন  ক্ষুব্ধ হয়ে পরের দিন ধানের ব্যবসায়ী খয়রুল ইসলাম (৪৫) ও তোয়াবুল (৪৪) নছিমন নিয়ে ধান কিনতে গেলে দেওগাঁও  এলাকার লোকজন তাদের কে মেরে রক্তাক্ত করে অাটকিয়ে রাখে। বিপরীতে বৈকুন্ঠপুরের লোকজন বিষয়টি সুরাহা করতে গেলে উভয় পক্ষের মধ্যে পুনরায় সংঘর্ষ বাধে এবং ঘরবাড়ি ভাংচুর করে ও উভয় পক্ষের অন্তত ২০  জন অাহত হয়। অাহতদের মধ্যে শায়রুল, তোয়াবুর, এবাদুল, সমারু, মাসুদ, অাবুল, অাসাদুল্লাহ,মানিক,হাসিবুর গুরুতর অাহত হয়ে ঠাকুরগাঁও অাধুনিক সদর হাসপাতালে চিকিত্সাধীন অাছেন। গতরাত অানুমানিক ৯ টার দিকে দেওগাঁও এলাকার অাবুল হোসেন (২৪) ও মোসারফের ছেলে অাব্দুল মমিন (২২) কে তুলে নিয়ে ফারাবাড়ি বাজারে ব্যাপক মারধর করে। এতে উভয় পক্ষের লোকজনের মাঝে উত্তেজনা বিরাজ করে। পরে ঠাকুরগাঁও জেলা যুবলীগের সভাপতি অাব্দুল মজিদ অাপেলের হস্তক্ষেপে তাদের কে উদ্ধার করা হয়। সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ( ওসি) মসিউর রহমান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।  বর্তমানে পরিস্থিতি  শান্ত রয়েছে।


Spread the love