ফুলবাড়ীতে সম্ভাব্য পৌর মেয়র প্রার্থী প্রচার-প্রচারনায় ব্যস্ত

51
Spread the love

medium_414ফুলবাড়ী (দিনাজপুর) প্রতিনিধি : দিনাজপুররের ফুলবাড়ীতে সম্ভাব্য ১২ জন পৌর মেয়র  প্রার্থী  প্রচার-প্রচারনায় ব্যস্ত। নির্বাচনী তফসিলের কোন নিদির্ষ্ট ঘোষনা না থাকলেও আগে থেকেই কোমর বেঁধে মাঠে নেমেছেন সম্ভাব্য পৌরমেয়র ও কাউন্সিলর প্রার্থীরা । ফুলবাড়ীতে ঈদুল ফিতরের আগেই বেশ কিছু মেয়র ও কাউন্সিলর প্রার্থীর ব্যানার ফেস্টুন দেখা গিয়েছে । এরপর ঈদুল আয্হা ও শারদীয় দুর্গাপূজা উপলক্ষে ব্যাপক হারে মেয়র ও কাউন্সিলর প্রার্থীদের ব্যানার-ফেস্টুন দেখা যাচ্ছে । দিন যতই গড়াচ্ছে ব্যানার ফেস্টুনের সংখ্যা ততই বাড়ছে । তফসিল ঘোষনার পূর্বেই বর্তমানে পৌর শহর জুড়ে শোভা পাচ্ছে পৌর নির্বাচনের সম্ভাব্য প্রার্থীদের  ব্যানার ফেস্টুন ও বিলবোর্ড আকারের বড় বড় সাইনবোর্ড । নির্বাচনে সম্ভাব্য প্রার্থীরা তাদের নিজ নিজ ছবি দিয়ে ঈদ ও পূজার শুভেচ্ছা জানিয়ে ভোটারদের অবস্থান জানিয়ে দিয়েছেন । বর্তমানে দোয়া চেয়ে জানাচ্ছেন যে তারা পৌর নির্বাচনের প্রার্থী । আবার কোন কোন সম্ভাব্য প্রার্থীরা ওয়ার্ডে ওয়ার্ডে ভোটারদের সাথে উঠান বৈঠক ও মতবিনিময় সভা করছেন এবং নির্বাচনের জন্য ভোটারদের নিকট দোয়া ও সহযোগীতা চাচ্ছেন । এবারের পৌর নির্বাচনে মেয়র সম্ভাব্য প্রার্থী হিসাবে মাঠে নেমেছেন ১২ জন । এরা হলেন সম্মিলিত পেশাজীবী সংগঠনের আহবায়ক খনি বিরোধী আন্দোলনের নেতা বর্তমান মেয়র মোঃ মুরতুজা সরকার মানিক, উপজেলা আওয়ামী লীগ এর সহ-সভাপতি সাবেক মেয়র মোঃ  শাহাজাহান আলী সরকার পুতু, পৌর বিএনপির সভাপতি আলহাজ্ব আব্দুল মান্নান সরকার, সাবেক পৌর চেয়ারম্যান মোঃ হবিবর রহমানের ছেলে মোহাম্মদ আব্দুল কাইয়ুম, তেল গ্যাস খনিজ সম্পদ ও বিদ্যুৎ বন্দর রক্ষা জাতীয় কমিটির সাবেক সদস্য সচিব ও সাবেক পৌর কাউন্সিলর এস.এম.নুরুজ্জামান, তেল গ্যাস খনিজ সম্পদ ও বিদ্যুৎ বন্দর জাতীয় রক্ষা কমিটির আহবায়ক সৈয়দ সাইফুল ইসলাম জুয়েল,উপজেলা যুবলীগের সভাপতি নাগরিক কমিটির আহবায়ক খাজা মঈন উদ্দিন, পৌর বিএনপির সাংগাঠনিক সম্পাদক সাহাজুল ইসলাম, উপজেলা বিএনপির সাংগাঠনিক সম্পাদক পৌর কাউন্সিলর আবুল বাসার, উপজেলা যুবদলের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক শিবলী সাদিক, উপজেলা জাতীয় পার্টির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সাবেক সেনা কর্মকর্তা মোঃ জামিল হোসেন ও ফুলবাড়ী সাব রেজিস্ট্রী অফিসের দলিল লেখক আল আমিন সরকার ।
এছাড়াও কাউন্সিলর পদেও শতাধিক প্রার্থী মাঠে নেমেছেন। তফসিল ঘোষনার পূর্বেই নির্বাচনী প্রচারণা ও বড় বড় বিল বোর্ড আকারের সাইনবোর্ড দেয়া নির্বাচনী আইন সঙ্গত কি না এ বিষয়ে ফুলবাড়ী উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা আহসান হাবিবের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, যেহেতু তফসিল ঘোষনা হয়নি এবং যারা সাইন বোর্ড দিয়েছেন তারা বৈধ প্রার্থী ও নয়, তাই এখন তাদের বিরুদ্ধে কোন প্রকার আইনী ব্যবস্থা নেয়া সম্ভব নয় । উল্লেখ্য, ২০১১ সালের জানুয়ারী মাসে ফুলবাড়ী পৌরসভা নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছিল । যা ২০১৬ সালের জানুয়ারী পৌর পরিষদের মেয়াদ শেষ হবে । তার পূর্বেই নির্বাচন হতে পারে নির্বাচন কমিশনের এই সম্ভাবনাকে সামনে রেখে ফুলবাড়ী পৌর নির্বাচনের সম্ভাব্য প্রার্থীরা এখন থেকেই কোমর বেধে মাঠে নেমেছেন।উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তার অফিস সুত্রে জানা যায় পৌরসভার মোট ভোটার সংখ্যা ২৪,২৮১ জন । এদের মধ্যে মহিলা ভোটার ১২,২৭৪জন ও পুরুষ ভোটার ১২,০০৭ জন ।

Spread the love