বগুড়ার গাবতলীতে একাধিক ছাত্রীকে যৌন হয়রানীর অভিযোগে ঔষধ ব্যবসায়ীর ২ বছর কারাদন্ড

103
Spread the love

pic--dalton--23.08.15গাবতলী (বগুড়া) প্রতিনিধিঃ বগুড়া গাবতলীর গোলাবাড়ী প্রাইমারী স্কুলের একাধিক ছাত্রীকে বিভিন্ন প্রলাভনে যৌন হয়রানীর অভিযোগে স্থানীয় এক ঔষধ ব্যবসায়ীকে আটক করে গনধোলাই দিয়ে পুলিশে সোপর্দ করেছে স্থানীয়রা। তার শাস্তির দাবিতে বিক্ষোভ, রাস্তা অবরোধের পর ভ্রাম্যমান আলাদলত তাকে ২ বছরের কারাদন্ড প্রদান করেছে। ঘটনাটি ঘটেছে গত রোববার দুপুরে। স্থানীয় জনগন ও ব্যবসায়ীরা জানায় মহিষাবান ইউনিয়নের মড়িয়া রানীর পাড়া গ্রামের ডাঃ গিয়াস উদ্দীনের ছেলে একাধিক কু-কর্মের নায়ক মহিদুল হাসান ডালটন তার গোলাবাড়ীস্থ পলি ফার্মেসি ঔষধের দোকানে দীর্ঘ দিন ধরে মড়িয়া সরকারী প্রাইমারী স্কুলের ৩য়, ৪র্থ ও ৫ম শ্রেনীর একাধিন ছাত্রীকে কলম, ঔষধ কোম্পানীর প্যাড ও চকোলেটের প্রলোভন দেখিয়ে যৌন হয়রানী করে আসছিল। ঘটনার দিন তাকে কয়েকজন ছাত্রীসহ হাতেনাতে স্থানীয় জনতা ও ব্যবসায়ীরা আটক করে প্রাইমারী স্কুলের শিক্ষকদের জানায়। পরে মহিলা শিক্ষক দ্বারা হয়রানীকৃত ছাত্রীদের গোপনে জ্ঞিাসাবাদে বিষয়টি নিশ্চত হয়। এঘটনা এলাকায় ছড়িয়ে পড়লে বিক্ষুদ্ধ জনতা ডালটনকে তার পলি ফার্মেসী থেকে টেনে বেরকরে গনধোলাই দিয়ে আটকে রাখে। সংবাদ পেয়ে বাগবাড়ী পুলিশ ফাঁড়ীর ইনচার্জ এসআই আনোয়ার হোসেন সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে তাকে উদ্ধার করে থানায় আনতে চাইলে বিক্ষুদ্ধ জনতা পুলিশের গাড়ীসহ ২ ঘন্টা রাস্তা অবরোধ করে রাখে ও লম্পট ডালটনের শাস্তির দাবিতে বিক্ষোভ করতে থাকে। অবস্থার বেগতিক দেখে এসআই আনোয়ার থানায় ও এ্যাসিলেন্ডকে ফোনে বিষয়টি জানালে সহকারী কমিশনার (ভুমি) আশরাফুল ইসলাম ঘটনার স্থানে গিয়ে স্বাক্ষ্য প্রমান ও আটক ডালটন তার দোষ স্বীকার করায়  ভ্রাম্যমান আদালত তাকে ২ বছরের সশ্রম কারাদন্ড প্রদান করে। ভ্রাম্যমান আদালতকে মডেল থানা ওসি তদন্ত নুরে আলম সিদ্দিকী, এসআই কোরবান আলী সহযোগীতা করে। রায় শোনার পর স্থানীয় জনতা উল¬াসে ফেটে পরে ও মিষ্টি বিতরন করে। ইতিপুর্বেও ডালনের বিরুদ্ধে বিলকিস নামে এক কিশোরীকে ধর্ষন করা। এছাড়া ও তার বিরুদ্ধে  একাধিক নারীকে যৌন হয়রানীর একাধিক ও বিচার শালিশের অভিযোগ রয়েছে।


Spread the love