বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় ভবিষ্যত কৃষি উদ্যোক্তা প্রতিযোগিতায় চ্যাম্পিয়ন

74
Spread the love

BAU pic-1 copyআবুল বাশার মিরাজ ও আহাদ আলম শিহাব : দেশের ছয়টি কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের নিয়ে ব্যবসা পরিকল্পনা বিষয়ে “ঋঁঃঁৎব অমৎর ঊহঃৎবঢ়ৎবহবঁৎ ঈড়হঃবংঃ ২০১৫” এর আয়োজন করে এসিআই এগ্রি-বিজনেস। তরুণদেরকে কৃষি ব্যাবসায় যুক্ত করে তাদের আইডিয়াগুলো জাতীয় পর্যায়ে পৌঁছে দিতে ওই প্রতিযোগিতার আয়োজন করা হয়। এতে বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় (বাকৃবি), শেরে বাংলা কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় (শেকৃবি), বঙ্গবন্ধু শেখ মুুজিবুর রহমান কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় (বশেমুরকৃবি),  সিলেট কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় (সিকৃবি), ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি অব বিজনেস এগ্রিকালচার এন্ড টেকনোলজি (আইইউবিএটি), হাজী মোহাম্মাদ দানেশ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় (হাবিপ্রবি) অংশগ্রহণ করে। এসব বিশ্ববিদ্যালয় থেকে প্রবন্ধ আহ্বানের মাধ্যমে ৪৫ জনকে নির্বাচিত করা হয়। পরে মোট ১৫ টি দল গঠন করা হয়। প্রতিযোগিরা তাদের বিভিন্ন আইডিয়া উপস্থাপন করেন। ধাপে ধাপে বিভিন্ন দলকে প্রতিযোগিতা থেকে বিদায় নিতে হয়। গত ১৬ মার্চ এ প্রতিযোগিতার গ্রান্ড ফাইনাল অনুষ্ঠিত হয়। এতে বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের (বাকৃবি) তিনটি দল অংশগ্রহণ করে। তার মধ্যে একটি দল চ্যাম্পিয়ন এবং আর একটি দল প্রথম রানার্স আপ হয়েছে। মৎস্যজাত বর্জ্যরে ব্যবহার বিষয়ে আইডিয়া উপস্থাপন করে চ্যাম্পিয়ন হয়েছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের কৃষি অর্থনীতি ও গ্রামীণ সমাজবিজ্ঞান অনুষদের শিক্ষার্থী তন্ময় কুমার ঘোষ ও জাকিয়া ফেরদৌস এবং ভেটেরিনারি অনুষদের আসাদুজ্জামান আসিফের দল । এতে নেতৃত্ব দেন তন্ময়।  তন্ময় বলেন, অনেক ভালো লাগছে এরকম একটি প্রতিযোগিতায় চ্যাম্পিয়ন হয়েছি। আমরা মৎস্যজাত বর্জ্য ব্যবহার করে বায়োডিজেল, তেল ও সার তৈরির বিষয়ে প্রবন্ধ উপস্থাপন করেছি। মৎস্য জাত বর্জ্য যদি আমরা যথাযথ ব্যবহার করতে পারি তা জালানী তেলের বিকল্প ও জমির উর্বরতা বৃদ্ধিতে সহায়ক হবে। সে আরো জানায়, পুরস্কার হিসেবে একটি ট্রফি এবং ১ লক্ষ টাকার চেক পেয়েছি। এছাড়াও কৃষিজাত পণ্যর খুচরা ব্যবসা এ বিষয়ে আইডিয়া উপস্থাপন করে প্রথম রার্নাস আপ হয়েছেন বাকৃবির কৃষি অনুষদের শিক্ষার্থী মেহেদী হাসান রাতুল ও এমএম মাহাবুব আলম এবং পশুপালন অনুষদের মো. লাভিন মিয়া। এতে নেতৃত্ব দেন রাতুল। প্রথম রানার্স আপ হিসেবে তারা একটি ট্রফি ও ৫০ হাজার টাকার একটি চেক পেয়েছে।


Spread the love