বাবাকে হত্যার পর ছেলের আত্মহত্যা

124
Spread the love

mপিরোজপুর প্রতিনিধি : পিরোজপুরের মঠবাড়িয়ায় বাবা আব্দুল জলিলকে(৬০)হত্যার পর আত্মহত্যা করেছে ছেলে মো. জহির(১৭)। এ সময় তার মা ফিরোজা বেগমকেও(৪৫) কুপিয়ে জখম করে সে। এরা হলেন- নাপিতখালী গ্রামের বাসিন্দা ও প্রাথমিক বিদ্যালয়ের অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষক আব্দুল জলিল (৬০) ও তার ছেলে স্থানীয় মিরুখালী কলেজের একাদশ শ্রেণির ছাত্র মো. জহির (১৭)।  সোমবার (২৪ আগস্ট) বিকেল সাড়ে ৪টার দিকে উপজেলার মিরুখালী ইউনিয়নের নাপিতখালী গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।  স্থানীয়রা জানান, বিকেলে নাপিতখালী গ্রামের বাড়িতে আব্দুল জলিলের সঙ্গে ছেলে জহিরের বাকবিতণ্ডা শুরু হয়। এক পর্যায়ে ধারালো অস্ত্র বাবা জলিলকে কুপিয়ে জখম করলে ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়। এ সময় মা ফিরোজা ছেলেকে ঠেকাতে গেলে তাকেও কুপিয়ে জখম করে জহির। গুরুতর আহত অবস্থায় ফিরোজাকে মঠবাড়িয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।  এর কিছুক্ষণ পর বাড়ি থেকে এক কিলেমিটার দূরে মিরুখালী গ্রামে একটি গাছের সঙ্গে গলায় ফাঁস লাগিয়ে জহির আত্মহত্যা করে।  মঠবাড়িয়া থানার উপপরিদর্শক (এসআই) মো. মহিবুল্লাহ এ বিষয়টি নিশ্চিত করে  জানান, লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।


Spread the love