বিশ্বনাথে মাদ্রাসা ছাত্র খুন মামলা দায়ের, সহপাঠী আটক

56
Spread the love

Biswanath (Sylhet) Photo=30.12.15বিশ্বনাথ (সিলেট) প্রতিনিধি : সিলেটের বিশ্বনাথে উপজেলা সদরস্থ ‘জামিয়া ইসলামী দারুল উলূম মাদাদিয়া মাদ্রাসা’র ফজিলত প্রথম বর্ষের ছাত্র সালমান আহমদ (১৮) খুনের ঘটনায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। গতকাল বৃহস্পতিবার সালমান আহমদের মা কুতুবী বেগম বাদী হয়ে অজ্ঞাতনামা ব্যক্তিদেরকে অভিযুক্ত করে মামলা দায়ের করেন। তবে মামলার লিখিত অভিযোগে নিহত সালমান আহমদের সহপাঠী ও মাদ্রাসার প্রতিষ্ঠাতা মুহতামিম মরহুম মাওলানা আশরাফ আলীর পুত্র মহসিন উদ্দিন নাইমকে সন্দেহভাজন অভিযুক্ত হিসেবে উল্লেখ করা হয়েছে।
এদিকে বুধবার ঘটনার সাথে জড়িত থাকার সন্দেহে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য থানা পুলিশ নাইমকে আটক করে ছিল। বৃহস্পতিবার তাঁকে (নাইম) আদালতে প্রেরণ করা হয়।
স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, নিহত সালমান ও আটককৃত নাইমের মধ্যে গভীর বন্ধুন্তপূর্ন সম্পর্ক ছিল। তবে মঙ্গলবার সকালে কোন একটি বিষয় নিয়ে সালমান ও নাইমের মধ্যে ব্যাপক বাগবিতন্ড হয়। বিকেলে তাঁদেরই সহপাঠীদের মধ্যস্থতায় বিষয়টি মিমাংশও হয়। পরবর্তিতে রাতে নাইমই সর্বশেষ মাদ্রাসা থেকে সালমানকে ডেকে বাইরে আনে বলে এলাকায় জনশ্রুতি রয়েছে। আর পরের দিন বুধবার সকালে উপজেলার নতুন বাজারস্থ তফজ্জুল আলী কমপ্লেক্সের সামন থেকে সালমানের লাশ উদ্ধার করে পুলিশ।
প্রসঙ্গত, নিহত সালমান আহমদ (১৮) সিলেটের গোলাপগঞ্জ উপজেলায় পূর্বগাঁও গ্রামের ছুটন মিয়ার পুত্র। সে বিগত চার বছর ধরে ‘জামিয়া ইসলামী দারুল উলূম মাদাদিয়া মাদ্রাসা’র বোডিং-এ থেকে লেখাপড়া করে আসছে। ৩০ ডিসেম্বের বুধবার সকালে উপজেলার নতুন বাজারস্থ তফজ্জুল আলী কমপ্লেক্সের সামন থেকে সালমানের লাশ পরে থাকতে দেখে বিষয়টি থানা পুলিশকে অবহিত করেন এলাকাবাসী। পরবর্তিতে পুলিশ লাশটি উদ্ধার করে সিলেট ওসমানী মেডিকেল হাসপাতালের মর্গে প্রেরণ করে।
মাদ্রাসার মুহতামিম মাওলানা শিব্বির আহমদ সাংবাদিক কে বলেন, আমরা চাই পুলিশ সালমান হত্যাকান্ডের সাথে জড়িত প্রকৃত অপরাধীদের খুঁজে বের করে আইনের আওতায় নিয়ে আসুক। তবে এঘটনায় যাতে কোন নিরপরাধী যাতে কোন প্রকারের হয়রাণীর স্বীকার না হন সে দিকে সবাইকে লক্ষ্য রাখতে হবে।
মামলা দায়েরের সত্যতা স্বীকার করে বিশ্বনাথ থানা ওসি (তদন্ত) মাসুদুর রহমান বলেন, ঘটনার আসল রহস্য উদঘাটনের জন্য তদন্ত চলছে। হত্যাকান্ডের সাথে জড়িত প্রকৃত অপরাধীদেরকে আইনের আওতায় নিয়ে আসা হবে। কাউকে এব্যাপারে হয়রাণী করা হবে না।


Spread the love