মণিরামপুরে শতভাগ পে-স্কেল বাস্তবায়নের দাবীতে পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির মানব বন্ধন

73
Spread the love

যশোর প্রতিনিধি : ‘দাবী মোদের একটাই,নতুন স্কেলে বোনাস চাই,আমরা ভিক্ষা চাই না,অধিকার চাই,মাথা উঁচু করে বাঁচতে চাই,সরকারি সিদ্ধান্ত অনুযায়ী বেতন শতভাগ বৃদ্ধির বাস্তবায়ন চাই’-এমন শ্লোগান সম্বলিত লিফলেট বুকে ধারণ করে মণিরামপুরে মানব বন্ধন ও স্মারকলিপি প্রদান করেছে যশোর পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি-২ এর কর্মকর্তা কর্মচারীবৃন্দ। সোমবার সকাল ১০ টায় সমিতির সদর দপ্তরের চত্বরে কয়েকশ’ কর্মকর্তা-কর্মচারীর উপস্থিতিতে এই মানববন্ধন শুরু হয়ে চলে ঘন্টাব্যাপি। মানব বন্ধন শেষে ক্ষুব্ধ কর্মকর্তা কর্মচারীরা সমিতির সিনিয়র জেনারেল ম্যানেজার সালাউদ্দীন আল বিতারের মাধ্যমে বিদ্যুৎ,জালানী ও খনিজ সম্পদ মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী বরাবর স্মারলিপি প্রদান করেন।
স্মারকলিপিতে বলা হয়, যশোর পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি-২ এর কর্মকর্তা কর্মচারীবৃন্দ মাথার ঘাম পায়ে ফেলে সারা মাস বিনা ছুটিতে অক্লান্ত পরিশ্রম করে যাচ্ছে। এত কষ্টের পরও সমিতির কর্মকর্তা-কর্মচারীরা অবহেলিত বঞ্চিত। ইতিমধ্যে বিদ্যুৎ মন্ত্রণালয়ের বিদ্যুৎ বিভাগ কর্তৃক সকল বিদ্যুৎ কোম্পানীকে ৭৫ ভাগ পে-স্কেল প্রদানের প্রস্তাব অনুমোদন হলেও বাংলাদেশ পল্লী বিদ্যুতায়ন বোর্ড (বিআরবি) তা প্রদানে গড়িমসি করছে। ফলে সমিতির কর্মকর্তা কর্মচারীদের মাঝে চাপা ক্ষোভ বিরাজ করছে। সম্প্রতি সঞ্চালন কোম্পানী পিজিসিবি আন্দোলনের মাধ্যমে ১২৩% পে-স্কেল অনুমোদন করিয়ে নিয়েছে। বিআরবি আমাদের পে-স্কেল দিবে দিবে বলে আশ্বাস দিয়েও কোন রকম আপডেট প্রদান করছে না। ইতিমধ্যে সরকার প্রদত্ত শতভাগ পে-স্কেল বিআরবি গ্রহণ করেছে। ফলে আজকের (সোমবার) মধ্যে কোন সমাধান না হলে আগামীকাল ২৮ তারিখ থেকে কঠোর আন্দোলনে যাওয়ার হুশিয়ারী দেয় সমিতির কর্মকর্তা কর্মচারীরা।
এবিষয়ে জানতে যশোর পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি-২ এর সিনিয়র জেনারেল ম্যানেজার সালাউদ্দীন আল বিতারের ব্যবহৃত মুঠো ফোন নম্বর ০১৭৬৯-৪০০০৩৭ এ একাধিক বার যোগাযোগ করার চেষ্টা করলে তিনি রিসিভ না করায় তার বক্তব্য রেকর্ড করা সম্ভব হয়নি।


Spread the love