যশোরে পরকীয়ায় বাধা দেয়ায় স্ত্রীকে পিটিয়ে হত্যা

64
Spread the love

mমণিরামপুর যশোর প্রতিনিধি : যশোরের মণিরামপুরে স্বামীর পরকীয়া প্রেমে বাধা দেয়ায় শিরিনা খাতুন বিউটি (৩২) নামে এক গৃহবধূকে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ উঠেছে। সোমবার এ হত্যাকাণ্ডের পর মঙ্গলবার সকালে পুলিশ লাশ উদ্ধার করেছে। ঘটনার পর আবু তাহের ও তার পরিবারের সদস্যরা বাড়ি ছেড়ে পালিয়ে গেছে। শিরিনা খাতুন বিউটি যশোরের কেশবপুর উপজেলার শ্রীরামপুর গ্রামের উকিল সরদারের মেয়ে ও মণিরামপুরের ত্রিপুরাপুর গ্রামের আবু তাহেরের স্ত্রী। মৃত শিরিনা খাতুন বিউটির ভাই ওহিদুজ্জামান অভিযোগ করে জানান, তার ভগ্নিপতি আবু তাহেরের সঙ্গে তার বড় ভাই আবু তৈয়বের স্ত্রীর পরকীয়া প্রেমের সম্পর্ক ছিল। এ অনৈতিক সম্পর্কে বাধা দেয়ায় সোমবার তার বোন বিউটিকে পরিবারের সদস্যরা মিলে মারপিট করে হত্যা করেছে। পরে আত্মহত্যা প্রচার করতে লাশ ঝুঁলিয়ে রাখা হয়। খবর পেয়ে তারা ঘটনাস্থলে আসলে কথাবার্তার এক পর্যায়ে বিষয়টি জানাজানি হয়ে যায়। এরপর তারা পুলিশের কাছে অভিযোগ করেছেন। মঙ্গলবার পুলিশ মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য হাসপাতালে পাঠিয়েছেন। রাজগঞ্জ ফাঁড়ির ইনচার্জ এসআই আইন উদ্দিন গণমাধ্যমকে জানান, সোমবার সন্ধ্যায় হত্যাকাণ্ডের খবর পাওয়ার পর মঙ্গলবার সকালে তারা মরদেহ উদ্ধার করেছেন। মৃত বিউটির শরীরের একাধিক স্থানে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। এ কারণে মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য যশোর মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। আর ঘটনার পর থেকে বিউটির স্বামী আবু তাহের ও তার পরিবারের সদস্যরা পলাতক রয়েছেন।


Spread the love