যৌতুক না দেওয়ায় মোকামতলায় শশুর শ্বাশুরী কর্তৃক পুত্রবধুকে নির্যাতন

75
Spread the love

মোকামতলা (বগুড়া) প্রতিনিধি: বগুড়ার মোকামতলায় যৌতুক না দেওয়ায় শশুর শ্বাশুরী কর্তৃক এক পুত্রবধুকে নির্যাতন করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। ঘটনার বিবরণে জানা যায়, বগুড়ার শিবগঞ্জ উপজেলার সৈয়দপুর ইউনিয়নের মানকৈড় গ্রামের শামিমা আক্তার গিনি ২০০৮ সালে একই গ্রামের জনৈক মোজাফ্ফর মন্ডলের পুত্র জহুরুল ইসলামের সাথে মন দেয়া নেয়ার এক পর্যায়ে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হয়ে বিবাহের পর থেকে স্বামী স্ত্রী উভয়ে ঢাকা একটি গার্মেন্টেস-এ কর্মরত থাকা অবস্থায় উভয়ের একটি কণ্যা সন্তান জন্ম নেয়। কন্যা সন্তানটির বয়স ৩ বছর হলে তারা গ্রামের বাড়িতে ফিরে আসে। এর মধ্যে এক পর্যায়ে জহুরুল গিনিকে যৌতুকের চাপ দিয়ে মারপিট ও নির্যাতন সহ্য করতে না পেয়ে বাবার বাড়ি থেকে প্রায় লক্ষাধিক টাকা যৌতুক এনে দেয় জহুরুলকে। তার পরও জহুরুল গিনিকে আবার যৌতুকের জন্য নির্যাতন শুরু করলে গিনি নারী ও শিশু নির্যাতন আইনে আদালতে একটি মামলা দায়ের করে যাহা কোর্টে বিচারাধীন আছে। এমতাবস্থায় গত ৩ মাস যাবত গিনির স্বামী গিনিকে ছেড়ে আবার ঢাকায় চলে যায় এবং গিনিকে কোন ভরণ পোষন না দেয়ায় স্বামীর বাড়িতে আসিলে শশুর মোজাফ্ফর মন্ডলে এবং শ্বাশুরী জোসনা বেগম আবরো তাকে নির্যাতন করে এবং কোন খোর পোষ দেয় না। অভিযোগ উঠেছে যে, উক্ত জহুরুল পুনরায় যৌতুকের চাপ দিয়ে গিনিকে তার বাবার বাড়িতে পাঠায়। এলাকাবাসির অভিযোগ বারবার অসহায় এই মেয়েটিকে নির্যাতন করা হচ্ছে। গিনি ও তার পরিবারের অভিযোগ স্বামী ও তার শশুর শ্বাশুরী বারবার যৌতুকের চাপ দিয়ে মানসিক ও শারিরিক নির্যাতন করে যাচ্ছে। গিনি আরও জানায় সে ৪ মাসের অন্ত:সত্তা এ অবস্থায় গত ১ সপ্তাহ যাবত শশুর-শ্বাশুরী তাকে খেতেও দেয় না। এমতাবস্থায় সে সমাজের নেতৃস্থানীয় ব্যক্তি সহ যথাযথ কর্তৃপক্ষের নিকট সু-বিচার দাবি করেন।


Spread the love