শারদীয় দুর্গোৎসব মহাঅষ্টমীতে আজ কুমারী পূজা

82
Spread the love

image_2120_268380স্টাফ রিপোর্টার : আজ বুধবার মহাঅষ্টমী ও কুমারী পূজা অনুষ্ঠিত হবে। বাঙালি হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের বৃহৎ ধর্মীয় উৎসব শারদীয় দুর্গাপূজায় গতকাল মঙ্গলবার ছিল মহাসপ্তমী। সকালে কলাবউকে স্নান করিয়ে শুরু হয় মহাসপ্তমী। ঢাক-ঢোল বাজিয়ে ও উলুধ্বনি দিয়ে মা দুর্গার ষোড়শ উপচারে সপরিবারে পূজা দিয়েছেন ভক্তরা। সকালে প্রাতে দেবীর নবপত্রিকা প্রবেশ স্থাপন ও সপ্তম্যাদি কল্পারম্ভ এবং অপরাহ্নে মহাসপ্তমী বিহিত পূজা অনুষ্ঠিত হয়। এছাড়া অন্যান্য আচার অনুষ্ঠানের মধ্যে ছিল দুস্থদের মাঝে খাবার বিতরণ এবং সন্ধ্যায় ছিল আরতি প্রতিযোগিতা। মহাসপ্তমীর দিন সকালে ত্রিনয়নী দেবী দুর্গার চক্ষুও দান করা হয়। এদিন ভক্তরা মা দুর্গাকে পুষ্প, নৈবেদ্য, আসন, বস্ত্র, চন্দন, ধূপ ও দীপ দিয়ে পূজা করেন। মহাসপ্তমী উপলক্ষে সন্ধ্যায় বিভিন্ন পূজামন্ডপে ধর্মীয় ভক্তিমূলক গান, রামায়ণ পালা ও আরতি প্রদান করা হয়। সকালে রাজধানীর আর কে মিশন রোডের রামকৃষ্ণ মিশন ও মঠ ঘুরে দেখা গেল ভক্তরা হাজির হয়েছেন মা দুর্গাকে পূজা দিতে। অনেকে এসেছেন সপরিবারে।
মিশনের মৃদুল মহারাজ জানালেন, এখানে মঙ্গলবার সকাল সাতটা পনের মিনিটে সপ্তমী পূজা শুরু হয়েছে। পূজা শেষে সকাল সাড়ে ১০টায় ভক্তরা মা’কে ফুল, বেলপাতা দিয়ে অঞ্জলী দিয়েছেন। অঞ্জলী দিয়ে মা’কে প্রণাম শেষে ভক্তরা প্রসাদ গ্রহণ করেছেন। বেলা গড়ানোর সাধে সাথে মন্ডপে মন্ডপে বেড়েছে দর্শনার্থীদের ভিড়। রোববার দেবী দুর্গার বোধন, আমন্ত্রণ ও অধিবাসের মধ্য দিয়ে শুরু হয় এই শারদীয় দুর্গোৎসবের আনুষ্ঠানিকতা। আজ বুধবার মহাষ্টমী। সকালে পূজা, সন্ধিপূজা ও মধ্যাহ্নে মহাপ্রসাদ বিতরণ। মহাষ্টমীতে সবচেয়ে বড় আকর্ষণ সকাল ১০টায় অনুষ্ঠিত হবে কুমারী পূজা। প্রতিবারের মতো এবারও ঢাকার রামকৃষ্ণ মিশন ও মঠে কুমারী পূজা দেখতে মানুষের ঢল নামবে। সন্ধ্যায় ধর্মীয় ভক্তিমূলক গান, আরতির পর রাতে সন্ধি ও কালীপূজা অনুষ্ঠিত হবে। আগামীকাল বৃহস্পতিবার মহানবমী এবং বিজয়া দশমী। তবে শুক্রবার বিজয়া শোভাযাত্রার মধ্য দিয়ে প্রতিমা বিসর্জন হবে। পাঁচ দিনব্যাপী এই বর্ণিল উৎসব শেষ হবে শুক্রবার। এবার সারা দেশে ২৯ হাজার ৭৪টি ম পে দুর্গাপূজা হচ্ছে। গত বছর এই সংখ্যা ছিল ২৭ হাজার ৮৫৮। ঢাকায় ২২৩টি ম পে দুর্গাপূজা অনুষ্ঠিত হচ্ছে। গত বছর এই সংখ্যা ছিল ২১৬টি। শারদীয় দুর্গোৎসব নির্বিঘ্ন করতে নেওয়া হয়েছে ব্যাপক নিরাপত্তা ব্যাবস্থা।


Spread the love