শিকলবন্দী অপহৃত স্কুলশিক্ষক নাটোরে উদ্ধার : আটক ৪

77
Spread the love

image_2084_263603নাটোর প্রতিনিধি : নাটোরের সিংড়ার আটঘোলা এলাকা থেকে রাজশাহীর বাঘার ছাতারী উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক এমদাদুল হককে মঙ্গলবার রাতে শিকলবন্দী অবস্থায় উদ্ধার করেছে র‌্যাব-৫। এ ঘটনার সাথে জড়িত চার অপরহণকারীকে আটক করা হয়েছে।
র‌্যাব-৫ রাজশাহী বাগমারা ক্যাম্পের এএসপি জামাল আল নাসের জানান, গত ২৯ আগস্ট প্রধান শিক্ষক এমদাদ ধার দেয়া টাকা ফেরত নেয়ার জন্য দেনাদার মোশারফ তাকে নাটোরের সিংড়া থানাধীন জামতলায় আসতে বলে। সেখান থেকে আরেকটু এগিয়ে যাবার কথা বলে মোশারফ তাকে শাহাদাত নামক এক ব্যক্তির বাড়িতে নিয়ে যায়। সেখানে রাতের খাবার শেষে মোশারফসহ তার অপর ৩ সহযোগী রাজ্জাক, ইসমাইল এবং শাহাদাত ওই স্কুল শিক্ষক এমদাদকে অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে ভিকটিম এর পরিবারের কাছে ১০ লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবি করে। এরপর আটঘোলা নামক দুর্গ এলাকার বুলুর বাড়িতে শিকল দিয়ে আটকে রাখে। অপহৃত এমদাদ বুলুর বাড়িতে আটক থাকাকালে তার খাবার আসতো পাশের গ্রামের আকরামের বাড়ি থেকে। পরবর্তীতে অপহরণকারীদের সাথে অনেক দেন-দরবারের পর অপহরণের মুক্তিপণ ৫ লাখ ৫০ হাজার টাকা নির্ধারিত হয়। বিষয়টি প্রশাসনকে অবগত করলে তারা অপহৃতকে মেরে ফেলার হুমকিও প্রদান করে।
বিষয়টি র‌্যাব অপহৃত ব্যক্তির অবস্থান নিশ্চিত হওয়ার পর র‌্যাব-৫ এর এএসপি জামাল আল নাসের এর নেতৃত্বে প্রথমে মোশারফ জামানকে গ্রেফতার করা হয়। পরে অপহৃত ছাতারী উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক এমদাদুলকে শিকল দিয়ে আটকানো অবস্থায় জীবিত উদ্ধার করে এবং অন্যান্য তিন অপহরণকারীকে গ্রেফতার করতে সক্ষম হয়। এ সময় তাদের কাছ থেকে দেশীয় তৈরি ২টি ধারালো অস্ত্র উদ্ধার করা হয়। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে অপহরণকারীরা জানায়, যেহেতু অপহৃত স্কুল শিক্ষক তাদের পূর্ব পরিচিত, তাই মুক্তিপণ আদায়ের পরপরই তারা তাকে হত্যা করে লাশ গুম করবে বলে পরিকল্পনা করছিল।
আটকৃতরা হলো- বড়াইগ্রামের চামটা গ্রামের মৃত ইরাজ ফকির এর ছেলে মোশারফ হোসেন (৪১), সিংড়ার আটঘোলা গ্রামের মৃত আমজাদ আকন্দ এর ছেলে মোঃ বুলু আকন্দ (৫৬), বনকুড়ুল গ্রামের আবেদ আলীর ছেলে শাহ আলম (২৫), সিরাজঞ্জের তাড়াশ উপজেলার গাবরগাড়ী গ্রামের মৃত আজগর আলী ছেলে আব্দুর রাজ্জাক (৪০)।
আটককৃতদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হচ্ছে বলে র‌্যাব কর্মকর্তা জামাল আল নাসের নিশ্চিত করেছেন।


Spread the love