শেখ হাসিনা জাতিকে ৩৭টি পুরস্কার উপহার দিয়েছেনঃ সুরঞ্জিত সেনগুপ্ত

279
Spread the love

senকনক দেব : আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা সুরঞ্জিত সেনগুপ্ত বলেছেন, ‘আমাদের জাতীয় জীবনের সবচেয়ে বড় এবং সবচেয়ে গর্বের পুরস্কার নিয়ে ফিরছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এতবড় অহঙ্কারের পুরস্কার এ জাতি আর কখনো পায়নি। এ যাবৎ তিনি ৩৭টি পুরস্কার জাতিকে উপহার দিয়েছেন।’ তিনি বলেন, ‘ধরিত্রীর সর্বশ্রেষ্ঠ কন্যার পুরস্কার পেয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আমাদেরও গৌরবের শীর্ষচূড়ায় পৌঁছে দিয়েছেন। তাই উষ্ণ সংবর্ধনা দিয়ে আমাদের সকলকে তার প্রতি আনুগত্য ও কৃতজ্ঞতা জানাতে হবে।’ তিনি আরো বলেন, ‘চ্যাম্পিয়ন্স অব দ্য’ আর্থ অর্থাৎ ধরিত্রীর সর্বশ্রেষ্ঠ কন্যা। এক দিনে ধরিত্রীর সর্বশ্রেষ্ঠ কন্যা হওয়া যায় না। এ জন্য জ্ঞান, মেধা, দূরদর্শিতা ও আন্তর্জাতিক দৃষ্টিভঙ্গি থাকা লাগে। ধরিত্রীর শ্রেষ্ঠ কন্যা পুরস্কার পেয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নিজেকে একটি সুউচ্চ শৃঙ্গে উঠানোর পাশাপাশি আমাদেরও গৌরবের শীর্ষচূড়ায় পৌঁছে দিয়েছেন। তাই তাকে উষ্ণ সংবর্ধনা দিয়ে তার প্রতি আমাদের আনুগত্য ও কৃতজ্ঞতা জানাতে হবে।’সুরঞ্জিত বলেন, ‘ধরিত্রীর কন্যা ও মানবতার মুখপাত্র হিসেবে শেখ হাসিনাকে ধন্যবাদ জানানো সকলের দায়িত্ব ও কর্তব্য। তাই সকল সঙ্কীর্ণতার ঊর্ধ্বে উঠে তাকে অভিনন্দন জানানো উচিত।’‘জাতিসংঘে চ্যাম্পিয়নস অব দ্য আর্থ এবং আইসিটি টেকসই উন্নয়ন পুরস্কারপ্রাপ্তিসহ বাংলাদেশের উন্নয়ন ও বিশ্বদরবারে মর্যাদা সমুন্নতকরণে শেখ হাসিনার অবদান’ শীর্ষক এক আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ সব কথা বলেন। ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটিতে বাংলাদেশ স্বাধীনতা পরিষদ ও আমরা নগরবাসী নামের দুটি সংগঠন শুক্রবার যৌথভাবে এ সভার আয়োজন করে। সভায় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য দেন- বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় উপ-কমিটির সহ-সম্পাদক এম এ করিম, হাসিবুর রহমান মানিক, বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক জোটের অরুণ সরকার রানা, বাংলাদেশ আওয়ামী প্রজন্ম লীগের কামরুল ইসলাম, বাংলাদেশ স্বাধীনতা পরিষদের সভাপতি অ্যাডভোকেট জিন্নাত আলী খান, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সংযুক্ত আরব আমিরাত শাখার সভাপতি ইঞ্জিনিয়ার মনোয়ার হোসেন প্রমুখ। এতে সভাপতিত্ব করেন আমরা নগরবাসীর সভাপতি অ্যাডভোকেট মো. জাহাঙ্গীর আলম খান।


Spread the love