সাদুল্যাপুরে রওজা প্রামাণিকের হুমকিতে আতঙ্কে সংখ্যালঘু পরিবার

67
Spread the love

ছাদেকুল ইসলাম রুবেল,গাইবান্ধা, প্রতিনিধি : সাদুল্যাপুরে পরাজিত মেম্বার প্রার্থী রওজা প্রামাণিকের অব্যহত ভয়ভীতিসহ হুমকিতে এক গ্রামের হিন্দু সম্প্রদায়ের সংখ্যালঘু (মাঝি) অন্তত ৩৫ পরিবারের লোকজন চরম আতষ্কে ও জীবনের নিরাপত্তহীনতায় ভূগছেন। ফলে এসব পরিবারের অনেকে ভয় ও আতঙ্কে বাড়ি থেকে বের হতে পারছেন না। যেতে পারছেন না হাট-বাজারেও।
এরমধ্যে গতকাল সন্ধ্যায় রওজা প্রামাণিক সংখ্যালঘু পরিবারের শ্রীমতি শেফালি রানী (৩৮) নামে এক নারীকে মারপিট করে আহত করেন। বর্তমানে শ্রীমতি শেফালি রানী সাদুল্যাপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন।
ঘটনাটি সাদুল্যাপুর উপজেলার ৮নং ভাতগ্রাম ইউনিয়নের টিয়াগাছা (চালনদহ মাঝিপাড়া) গ্রামের। গত ৭ মে অনুষ্ঠিত ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনের পর থেকে এভাবে চরম আতঙ্কে ও নিরাপত্তাহীনতায় ভূগছেন গ্রামের ৩৫ পরিবারের নারী-পুরুষ। এ ঘটনা থেকে পরিত্রান পেতে এলাকার সংখ্যালঘু পরিবারের নারী-পুরুষ সাদুল্যাপুর থানার অফিসার ইনচার্জ পুলিশ কর্মকর্তাসহ সংশ্লিষ্ট প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করেন।
টিয়াগাছা (চালনদহ মাঝিপাড়া) গ্রামের কার্তিক চন্দ্র দাস জানান, গ্রামের বসবাসরত ৩৫ পরিবারের লোকজন পেশায় মৎসজীবি। তার ভয়ে ও আতষ্কে বাড়িতে ঠিকভাবে বসবাস করতে পারছেন না এসব পরিবারের লোকজন।
গ্রামের নরেশ চন্দ্র জানান, রওজা প্রামাণিক তার বসতবাড়িতে হামলা চালিয়ে স্ত্রীকে মারপিট করে শ্লীলতাহানী ঘটায়। এতে শেফালী রানী গুরুত্বর আহত হয়ে হাসপাতালে রয়েছেন। এ ঘটনায় তিনি সাদুল্যাপুর থানায় রওজা ও তার স্ত্রী মিরা বেগমকে আসামী করে থানায় মামলা করেছেন। মামলার করারও পরেও তাকে প্রাণে মেরে ফেলার হুমকি দিচ্ছেন রওজা প্রামাণিক।
সাদুল্যাপুর উপজেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সাধারণ সম্পাদক শ্রী প্রভাত চন্দ্র অধিকারী জানান, ভোটে পরাজিত হওয়ার কারণে রওজা প্রামাণিক গ্রামের সংখ্যালঘু (মাঝি) পরিবার আতঙ্কে ও অবরুদ্ধ অবস্থায় জীবন যাপন করছেন। অনেকে তার ভয়ে পালিয়ে বেড়াচ্ছেন। তাছাড়া এসব পরিবারের লোকজনকে দেশ ত্যাগেরও হুমকি দিচ্ছেন রওজা প্রামাণিক।
তবে অভিযোগের বিষয়ে পরাজিত প্রার্থী রওজা প্রমাণিকের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলেও তার বক্তব্য পাওয়া যায়নি।


Spread the love