সিলেটের গোলাপগঞ্জে গণপিটুনিতে নিহত ২ ছিনতাইকারীর পরিচয় পাওয়া গেছে

55
Spread the love

Untitled-1-copy52গোলাপগঞ্জ সিলেট প্রতিনিধি : সিলেটের গোলাপগঞ্জে প্রবাসীর টাকা ছিনতাইকালে জনতা গণধোলাই দেয় দুই ছিনতাইকারীকে।বৃহস্পতিবার বেলা দেড়টার দিকে গোলাপগঞ্জ ও বিয়ানীবাজার উপজেলার মধ্যবর্তী গোলাপগঞ্জের বহরগ্রাম এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।  ঘটনাস্থলেই এক ছিনতাইকারী নিহত হয়। অপর ছিনতাইকারীকে গুরুতর আহত অবস্থায় সিলেট ওসমানী হাসপাতালে নেওয়া হয়েছিল।  গণপিটুনিতে গুরুতর আহত ছিনতাইকারী শেষ পর্যন্ত হাসপাতালে চিকিৎসাধিন অবস্থায় মারা গেছে। সেই সঙ্গে তাদের পরিচয়ও জানা গেছে বলে থানা সূত্রে জানা যায়। ঘটনার পর পরই গণধোলাই খেয়ে মারা যাওয়া ব্যক্তি মৌলভীবাজার জেলার কুলাউড়া উপজেলার রাজানগর গ্রামের রফিক মিয়ার পুত্র সেলিম আহমদ (৩০)। চিকিৎসাধিক অবস্থায় বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ৩টায় সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে মৃত্যু বরণ করে অপর ছিনতাইকারী সুনামগঞ্জ জেলার তাহিরপুর থানার কলাগাঁও গ্রামের মৃত আব্দুছ ছালামের পুত্র কামাল মিয়া (৩৫)। শুক্রবার সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল থেকে নিজ নিজ আত্মীয় স্বজনরা লাশ সনাক্ত করে নিয়ে যায়। উল্লেখ্য যে গোলাপগঞ্জ উপজেলার বহর গ্রামের লন্ডন প্রবাসী আফরুজ মিয়া গত বৃহস্পতিবার বিকেল অনুমানিক আড়াই টায় বিয়ানীবাজার ব্যাংক থেকে ৪ লক্ষ টাকা উত্তোলন করে সিএনজি অটোরিক্সা যোগে বাড়ী ফিরছিলেন। এ সময় বিয়ানীবাজার থেকেই ৩টি মোটর সাইকেল যোগে ৬জন ছিনতাইকারী তার পিছু নেয়। বিয়ানীবাজার উপজেলার পশ্চিম প্রান্তে ও গোলাপগঞ্জের পূর্বপ্রান্তে বুধবারী বাজার ইউনিয়নের মাঝা মাঝি সাকুবিলের তক্তারপুল নামক স্থানে পৌছা মাত্র ছিনতাইকারীরা তার ব্যবহৃত সিএনজি অটোরিক্সা ঘেরাও করে ফেলে। তখন অস্ত্রের ভয় দেখিয়ে আফরুজ মিয়ার লন্ডনী পাসপোর্ট ও টাকার ব্যাগটি তারা ছিনিয়ে নিয়েছিল। পরে বহরগ্রাম ফেরীঘাটে জনতার হাতে ছিনতাইকারী কামাল ও সেলিম ধরা পড়লে গনধোলাই খেয়ে প্রাণ ঘটনাস্থলেই সেলিম প্রাণ হারায় এবংকামালকে পুলিশ উদ্ধার করে সিলেট ওসমানী হাসপাতালে নিয়ে যায়। এ ব্যাপারে গোলাপগঞ্জ মডেল থানায় পুলিশ বাদি হয়ে একটি হত্যা মামলা দায়ের করে (মামলা নং ১১. ২৯/১০/২০১৫ইং)।অপরদিকে ছিনতাইকারীর কবলেআক্রান্ত ব্যক্তি আফরোজ মিয়া কয়েকজনের নাম
উল্লেখ্য করে ও অজ্ঞাত কয়েকজনের নামে বিয়ানীবাজার থানায় একটি ছিনতাই মামলা দায়ের করেন। গোলাপগঞ্জ থানার ওসি এ,কে,এম ফজলুল হক শিবলী ও বিয়ানীবাজার থানায় ওসি জুবের আহমদ এসব তথ্য নিশ্চিত করেন।


Spread the love