সিলেটের প্রথম ফুটওভার ব্রিজে’র উদ্বোধন করলেন অর্থমন্ত্রী

279
Spread the love

Minister-Pic-3.9.15-8pg-copy-600x19212সিলেট প্রতিনিধি : আগামী কিছুদিনের মধ্যেই প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সিলেটে এসে সিলেটবাসীর দীর্ঘ প্রতিক্ষিত কাজিরবাজার সেতুর উদ্বোধন করবেন বলে জানিয়েছেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত এমপি। বৃহস্পতিবার বেলা আড়াইটায় সিলেটের বন্দরবাজারে প্রথমবারের মতো নির্মিত ফুটওভার ব্রিজের উদ্বোধনী বক্তব্যে অর্থমন্ত্রী এই কথা জানান। পথচারীদের পারাপারের সুবিধার্থে এবং যানজট কমাতে অর্থমন্ত্রীর বিশেষ বরাদ্দের সুবাদে সিলেট মহানগরীতে প্রথমবারের মতো নির্মিত হয়েছে এই ফুট ওভারব্রিজ। বিগত বছর সিটি করপোরেশন এলাকার পাঁচটি উন্নয়ন প্রকল্পের জন্য অর্থমন্ত্রী তার বিশেষ কোটা থেকে বরাদ্দ প্রদান করেন। সিলেট কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারের পুনঃনির্মাণ, ভোলানন্দ উচ্চ বিদ্যালয়ের বহুতল ভবন নির্মাণ, বর্ণমালা প্রাথমিক বিদ্যালয়ের উন্নয়ন কাজ বাস্তবায়িত হওয়ার পর বৃহস্পতিবার চতুর্থ প্রকল্প বন্দরবাজারের ফুট ওভার ব্রিজের উদ্বোধন করলেন অর্থমন্ত্রী। পঞ্চম প্রকল্প সিলেট সিটি কর্পোরেশনের স্টাফ কোয়ার্টার নির্মাণ কাজও দ্রুত গতিতে চলছে। বৃহস্পতিবার উদ্বোধন শেষে অর্থমন্ত্রী হেঁটে হেঁটে ফুটওভার ব্রিজের উপরে একপাশে উঠেন এবং সেখান থেকে বক্তব্য রাখেন। এসময় নিজের কৈশোর জীবনের কথা স্মরণ করে অর্থমন্ত্রী বলেন, ‘সিলেট মহানগরীতে আমার কৈশোর জীবনে ২৫ হাজার লোকের বসবাস ছিল। তখন ইচ্ছা করলেই হেটে হেটে পুরো শহরটা মাত্র কিছু সময়ের মধ্যেই ঘুরে দেখা যেত। কিন্তু আমার মনে হয় এখন এই মহানগরীতে জনসংখ্যা ৭ লাখের কম হবে না। সুতরাং এই জনসমুদ্রের বিকাশের সাথে তাল মিলিয়ে আমাদের চলতে হবে। সেজন্যই এইসব ফুটওভার ব্রিজ, রাস্তা প্রশস্তকরণ, ডিভাইডার ইত্যাদির প্রয়োজন।’উদ্বোধনকালে সিলেট সিটি কর্পোরেশনের সাবেক মেয়র এবং মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি বদর উদ্দিন আহমদ কামরান বলেন, অর্থমন্ত্রীর ঐকান্তিক প্রচেষ্টায় সিলেটে একের পর এক উন্নয়ন কর্মকান্ড পরিচালিত হচ্ছে। ইতোমধ্যে তার আগ্রহে এবং অর্থ বরাদ্দের সুবাদে সিলেটে উল্লেখযোগ্যসংখ্যক উন্নয়ন প্রকল্প বাস্তবায়ন হয়েছে, যার সুফল সিলেট মহানগরবাসী পাচ্ছেন। কিছু প্রকল্প বাস্তবায়নের কাছ চলছে এবং ভবিষ্যতে আরও অনেক প্রকল্প বাস্তবায়নের পরিকল্পনা রয়েছে। সিলেট সিটি কর্পোরেশনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা এনামুল হাবীব সাংবাদিকদের সাথে আলাপকালে জানান, অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত সিলেট মহানগর্রী উন্নয়নে সবসময় আন্তরিক। অর্থমন্ত্রীর বিশেষ কোটার বরাদ্দ থেকেই সিলেটের ফুটওভারব্রিজটি নির্মিত হয়েছে। সম্পূর্ণ স্টিলের স্টাকচার দিয়ে নির্মিত এই ফুট ওভারব্রিজে নির্মাণে ব্যয় হয়েছে প্রায় ১ কোটি ৬৬ লাখ টাকা। গুরুত্ব বিবেচনা করে সিলেটের আরও কয়েকটি স্থানে ফুটওভার ব্রিজ নির্মাণ বিবেচনাধীন আছে বলেও জানান এনামুল হাবীব। ফুটওভারব্রিজ উদ্বোধনকালে উপস্থিত ছিলেন জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক, সাবেক এমপি শফিকুর রহমান চৌধুরী, সহ-সভাপতি ও সিলেট সদর উপজেলা চেয়ারম্যান  আশফাক আহমদ, মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আসাদ উদ্দিন আহমদ। সিলেট সিটি কর্পোরেশনের সম্মানিত কাউন্সিলরদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন ৩ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর এস এম আবজাদ হোসেন, ৫ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর রেজওয়ান আহমদ, ৯ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর মখলিছুর রহমান কামরান, ১১ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর রকিবুল ইসলাম ঝলক, ১৬ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর আব্দুল মুহিত জাবেদ, ২০ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর আজাদুর রহমান আজাদ,  ২৩ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর মো: মুসতাক আহমদ, ২৬ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর তৌফিক বকস, সংরক্ষিত ১ আসনের কাউন্সিলর কোহিনুর ইয়াসমিন ঝর্ণা, সংরক্ষিত ৫ আসনের কাউন্সিলর দিবা রাণী দে, সিলেট সিটি কর্পোরেশনের সচিব রেজাই রাফিন সরকার, প্রধান প্রকৌশলী (ভারপ্রাপ্ত) নুর আজিজুর রহমান, নির্বাহী প্রকৌশলী আলী আকবরসহ আরও অনেকে।  উদ্বোধনশেষে মোনাজাত পরিচালনা করেন কালেক্টরেট মসজিদের পেশ ইমাম হাফেজ মাওলানা মো: শাহ আলম। এর আগে অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত এমপি বেলা ২টায় রিকাবীবাজার-মীরেরময়দান সড়ক প্রশস্তকরণ, ডিভাইডার নির্মাণ এবং ইলেকট্রিক পোল নির্মাণ কাজের ভিত্তি প্রস্তর স্থাপন করেন। এই প্রকল্পে ব্যয় হবে প্রায় ১ কোটি ২০ লাখ টাকা। বর্তমানে প্রায় ২০ ফুট প্রশস্ত এই রাস্তাটি প্রকল্প বাস্তবায়নের পর ৫০ ফুটে উন্নীত হবে।


Spread the love