সুনামগঞ্জের রোপা আমনের ব্যাপক ক্ষতি, কৃষকরা চিন্তিত

131
Spread the love

Fakirhat-pic-3120150731065244সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি : টানা বৃষ্টিপাত ও কুশিয়ারা নদীর পানি বৃদ্ধি পাওয়ার ফলে জগন্নাথপুরে রোপা আমনের ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে। রোপা আমনের বীজতলা নষ্ট হয়ে যাওয়ায় জগন্নাথপুরের কৃষকরা বিপাকে পড়েছেন। কুশিয়ারা নদীর পানি কমতে শুরু করলেও কৃষকদের শঙ্কা দূর হচ্ছে না। কৃষকরা  জানিয়েছেন, হঠাৎ করে কুশিয়ারা নদীর পানি বৃদ্ধি পাওয়ায় জগন্নাথপুর উপজেলার ওপর দিয়ে বয়ে যাওয়া কুশিয়ারা নদীর পানি বৃদ্ধি পেয়ে রানীগঞ্জ ও পাইলগাঁও ইউনিয়ন বন্যা কবলিত হয়ে পড়ে। এতে করে অত্র অঞ্চলের আউস ও আমন তলিয়ে যায়।এতে কৃষকরা ব্যাপক ক্ষতিগ্রস্ত হন। জগন্নাথপুর উপজেলার রানীগঞ্জ ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মজলুল হক জানান, কুশিয়ারা নদীর পানি বৃদ্ধি পাওয়ায় রানীগঞ্জ ইউনিয়নের সবকটি হাওরের বীজতলা তলিয়ে গেছে। এতে করে আউস ও আমনের ব্যাপক ক্ষতিসাধিত হয়েছে। পাইলগাঁও ইউনিয়নের বাসিন্দা কৃষক  আব্দুল আলীম জানান, কুশিয়ারা নদীর পানি বৃদ্ধি পাওয়ায় পুরো ইউনিয়নের বীজতলা তলিয়ে গেছে। এতে করে তার ১০ কেদার রোপা আমনের চারা তলিয়ে গেছে। পাইলগাঁও ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আপ্তাব উদ্দিন কুশিয়ারার পানি বৃদ্ধিতে ইউনিয়নের রোপা আমন ক্ষতিগ্রস্থ হওয়ার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন বিষয়টি ইউনিয়ন পরিষদের পক্ষ থেকে কৃষি বিভাগকে জানানো হয়েছে। জগন্নাথপুর উপজেলা কৃষি অফিসার আসাদুজ্জামান বলেন, জগন্নাথপুরে বন্যার পানিতে ১২০ হেক্টর আমন ও ০১ হেক্টর বীজতলা তলিয়ে গেছে। বন্যার পানি পুরোপুরি কমে গেলে ক্ষয়ক্ষতির পরিমান নির্ণয় করা যাবে।


Spread the love