‘সেতু আছে, রাস্তা নেই’ দুর্ভোগে শিক্ষার্থী ও এলাকাবাসী

63
Spread the love

????????????????????????????????????

সিলেট প্রতিনিধি : সিলেটের বিশ্বনাথ উপজেলার মুফতির বাজার-ছহিফাগঞ্জ বাজার রাস্তার পাশ দিয়ে বয়ে যাওয়া মরা সুমরা নদীর কাটাখালী খালের মুখে অবস্থিত সেতুটি এখন মনর ফাঁদে পরিণত হয়েছে। প্রতিদিন শত শত ছাত্র-ছাত্রী ও জনসাধারনকে চলাচল করতে হয় এই সেতু দিয়ে। দীর্ঘদিন ধরে সেতুর দু’পাশে মাটি না থাকায় সেতুর ওপর মই বসিয়ে যাতায়াত করতে হচ্ছে। ফলে মারাত্মক দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে এলাকাবাসীকে। খোজঁ নিয়ে জানা গেছে, ২০০৭ সালে বিশ্বনাথ উপজেলার খাজাঞ্চি ইউনিয়নের তবলপুর গ্রামের পাশ দিয়ে বয়ে যাওয়া মরা সুরমা নদীর কাটাখালি খালের মুখে সেতুটি নির্মাণ করা হয়। এপ্রোচ ও রাস্তা বিহীন সেতুটি নির্মাণ করার পর এ বিষয়ে ২০০৮ সালে স্থানীয় ও জাতীয় বিভিন্ন পত্রিকায় সংবাদ প্রকাশিত হলে সংশ্লিষ্ট ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান সেতুটির এপ্রোচ নির্মাণ করেন।  এপ্রোচ নির্মান করা হলেও রাস্তার সাথে সেতুটির সংযোগ দেওয়া হয়নি এখনো। এভাবেই চলে গেছে কয়েকটি বছর। প্রায় ৮ বছর ধরে রাস্তাবিহীন সেতুটি দাঁড়িয়ে আছে। ফলে প্রতিদিন শত শত শিক্ষার্থীকে ঝুঁকিপূর্ণভাবে সেতুর উপর দিয়ে চলাচল করতে হচ্ছে বাধ্য হয়ে।এ ব্যাপারে খাজাঞ্চী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান নিজামউদ্দিন সিদ্দিকী বলেন, কয়েকটি গ্রামের মানুষের যোগাযোগের প্রধান এ রাস্তা পারাপারের জন্য প্রায় ৮ বছর আগে সেতু নির্মাণ করা হয়। কিন্ত জনগুরুত্বপূর্ণ এই রাস্তা উচুকরণ কিংবা সেতুর দুই পাশে সংযোগ সড়ক না থাকায় চলাচলের ক্ষেত্রে প্রতিদিন অসংখ্য মানুষকে চরম দুর্ভোগ পোহাতে হয়। বিষয়টি উপজেলা প্রশাসনকে অবহিত করা হয়েছে বলে তিনি জানান।
উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মুহাম্মদ আসাদুল হক বলেন, এই সেতুর কথা আগে কেউ আমাকে অবহিত করেননি। তবে শীঘ্রই এই সেতুর দুই পাশের রাস্তা উচুকরনে ব্যবস্থা করা হবে।


Spread the love