২৫ ডিসেম্বর শুক্রবার পবিত্র ঈদে মিলাদুন্নবী

83
Spread the love

bd eনিজস্ব প্রতিবেদক : শনিবার সন্ধ্যায় দেশের আকাশে রবিউল আউয়াল মাসের চাঁদ দেখা যায়নি। এজন্য সোমবার থেকে রবিউল আউয়াল মাস গণনা শুরু হচ্ছে। আগামী ২৫ ডিসেম্বর শুক্রবার পবিত্র ঈদে মিলাদুন্নবী (সা.) পালিত হবে। বায়তুল মুকাররমে ইসলামিক ফাউন্ডেশনের সভাকক্ষে শনিবার সন্ধ্যায় জাতীয় চাঁদ দেখা কমিটির সভায় এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। এতে সভাপতিত্ব করেন ধর্ম সচিব চৌধুরী মো. বাবুল হাসান। সভায় ধর্ম সচিব জানান, সকল জেলা প্রশাসন, ইসলামিক ফাউন্ডেশনের প্রধান কার্যালয়, বিভাগীয় ও জেলা কার্যালয়, আবহাওয়া অধিদফতর, মহাকাশ গবেষণা কেন্দ্র ও দূর অনুধাবন প্রতিষ্ঠান হতে প্রাপ্ত তথ্য অনুযায়ী বাংলাদেশের আকাশে ১৪৩৭ হিজরির রবিউল আউয়াল মাসের চাঁদ দেখা যায়নি। রবিবার সফর মাসের ৩০ দিন পূর্ণ হচ্ছে। সোমবার থেকে রবিউল আউয়াল মাস গণনা শুরু হবে। আগামী ২৫ ডিসেম্বর (১২ রবিউল আউয়াল) দেশে পবিত্র ঈদে মিলাদুন্নবী উদযাপিত হবে। মুসলমানরা ১২ রবিউল আউয়াল মহানবী হয়রত মুহম্মদ (স.) এর জন্ম ও মৃত্যু (ওফাত) দিবস হিসেবে পালন করে। সেই হিসাবে আগামী ২৫ ডিসেম্বর হবে ১২ রবিউল আউয়াল। ঈদে মিলাদুন্নবীর দিন সাধারণ ছুটি। যদিও ২৫ ডিসেম্বর বড় দিনের ছুটি, তার উপর ওইদিন শুক্রবার হওয়ায় সাপ্তাহিক ছুটির দিন। সভায় প্রধান তথ্য কর্মকর্তা তছির আহাম্মদ, আবহাওয়া অধিদফতরের পরিচালক মো. শাহ আলম, তথ্য মন্ত্রণালয়, মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ, জেলা প্রশাসনের প্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন। মহানবী হযরত মুহম্মদ (সা.) ৫৭০ খ্রিষ্টাব্দের হিজরি রবিউল আউয়াল মাসের ১২ তারিখ মক্কার কুরাইশ বংশে জন্মগ্রহণ করেন। আরবের মরু প্রান্তরে শান্তির ধর্ম ইসলামের প্রচার শুরু করেন তিনি। তার আবির্ভাব এবং ইসলাম ধর্মের প্রচার সারা বিশ্বে আলোড়ন সৃষ্টি করেছিল। দীর্ঘ ২৩ বছর ইসলাম ধর্ম প্রচার করে ৬৩ বছর বয়সে ১২ রবিউল আউয়ালই তিনি মৃত্যুবরণ করেন। দিনটি ঈদে মিলাদুন্নবী হিসেবে সারা পৃথিবীর মুসলমানরা পালন করে থাকে। মিলাদ আরবি শব্দ। এর অর্থ জন্মবৃত্তান্ত। আর মিলাদুন্নবী (সা.) অর্থ হচ্ছে নবী করিম (সা.)-এর জন্মবৃত্তান্ত সম্পর্কে আলোচনা করা। ঈদে মিলাদুন্নবীর দিনে মসজিদ ও বিভিন্ন ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানে মিলাদ মাহফিল ও আলোচনা অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।


Spread the love