রাঙামাটিতে ৪ বছরের শিশুকে জবাই করে হত্যার চেষ্টায় সৎ মা আটক

83

রিকোর্স চাকমা, জেলা প্রতিনিধি (রাঙামাটি) : রাঙামাটিতে ৪ বছরের শিশু ফারজানকে গলা জবাই করে হত্যা করার চেষ্টায় সৎ মা কাউছার ফেরদৌসকে আটক করা হয়েছে। (১১ জানুয়ারী), শনিবার দুপুরে রাঙামাটি শহরে কোর্ট বিল্ডিংস্থ সোনালী বাক এলাকায় এই দূর্ঘটনা ঘটে। ছেলের চিৎকার শুনে ফারজানের আসল মা ছুটে আসলে তাকে ও হত্যার চেষ্টায় চালায়। একপর্যায়ে ফারজানের আসল মায়ের চিৎকার শুনে আশেপাশে লোকজন ছুটে আসে এবং সৎ মা কাউছার ফেরদৌসকে তাৎক্ষনিক আটক করে পুলিশকে খবর দেয়। স্থানীয়দের সহায়তায় ফাজানকে রাঙামাটি সদর হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়। সেখানকার কর্ত্যবরত চিকিৎসক জানান, শিশুটির গলায় ৬ ইঞ্চির মত কাটা গেছে। শিশুটির অবস্থা আশংকাজনক হওয়ায় তাকে চট্টগ্রাম মেডিকেলে উন্নত চিকিৎসার জন্য প্রেরণ করা হয়েছে। এদিকে আহত শিশুর আসল মা জানান, সে বাসার ছাদে কাপড় শুকাতে গেলে তার স্বামীর প্রথম স্ত্রী কাউছার ফেরদৌস তার বাসায় গিয়ে ফারজানকে বাটরুমে ডেকে নিয়ে গিয়ে গলায় ছুরি দিয়ে হত্যার চেষ্টা চালায়। আমি ছেলের চিৎকার শুনে এসে দেখি আমার ছেলেকে সে গলা কেটে দিয়ে ফেলেছে। আমাকে দেখে সে আমাকে ও হত্যার চেষ্টা চালায় এবং একপর্যায়ে আমার চিৎকার শুনে আশে পাশের লোকজন ছুটে এসে আমাকে উদ্বার করে ছেলেটিকে দ্রুত হাসপাতালে নিয়ে যায় এবং মহিলাটিকে আটক করে। রাঙামাটিত সদর সার্কেল অতিরিক্ত পুলিশ সুপার তাপস রঞ্জন ঘোষ জানান, ঘটনার খবর পেয়ে পুলিশ দ্রুত ঘটনাস্থলে গিয়ে হামলাকারী মহিলাটিকে আটক করা হয়। আহত শিশুর আসল মায়ের কথা শুনে আইনী কাজ শুরু করবো। তবে শিশুটির অবস্থা এখনো আশংকামুক্ত নয় বলে জানান তিনি।