একাকীত্বের গল্প, এলোমেলো চিন্তা, বাস্তবে না হোক, আমাদের হৃদয়ে, কল্পনাতে হতেই পারে… পর্ব-১৮

63

নয়ন বাবু : মানুষের ভিড়ে আমি এক অমানুষ… দুটি হাত, দুটি পা, দুটি চোখ আর একটি চলমান হৃদপিণ্ড থাকলেই কি মানুষ হওয়া যায়? আমার ঠিক জানা নেই। তবে আমার চারপাশ এমন প্রাণীগুলোকে সবাই মানুষ বলে। আমারো দুটি হাত, দুটি পা, একজোড়া চোখ আর পাঁজরের ভেতর চলমান একটি হৃদপিণ্ড আছে। তাই হয়তো আমিও মানুষ, তবু কেন যেন নিজেকে মানুষ বলে ভাবতে পারি না। নিজেকে বরং আকাশ ভাবতে ভালোই লাগে। আকাশের মতোই আমার ভেতরে সবাই থাকতে পারে কিন্তু কারো পাঁজরেই আমার জায়গা হয় না। আমি হয়তো আকাশ হয়ে গেছি অথবা গাছ! নিজেকে আজকাল গাছ ভাবতে মন্দ লাগে না। গাছের মতো নির্বাক সবকিছু তাকিয়ে দেখি। দেখি, মানুষগুলো কতো সহজেই ভেতরের জন্তুটাকে মুখোশ পরিয়ে রাখে। দেখি তাঁদের মন ভোলানো অভিনয়। হয়তো বোবা গাছের মতো আমিও বোবা হয়ে সব দেখার জন্য জম্ম নিয়েছি, তাই নিজেকে গাছ ভেবে সান্ত্বনা পাই। কারণ এদের কর্মকাণ্ডের সামান্য প্রতিবাদ করলেই তারা নোংরা প্রতিক্রিয়া দেখায়। তাই আজকাল নিজেকে মানুষ ছাড়া আর সবকিছু ভাবতেই স্বাচ্ছন্দ্য বোধ করি। এককালে মানুষ হতে চাইতাম, কিন্তু মানুষগুলো মানুষ হওয়ার মানে টাই পাল্টে দিলো। এখন আমি আর মানুষ হতে চাই না, নিজেকে অমানুষ ভেবেই আনন্দ পাই। তাই মানুষের ভিড়ে আমি অমানুষ। এমন অমানুষরা ভালোবাসা পায় একটা নির্দিষ্ট সময়ের জন্য। তবু ভালো থাকুক আমার ভালোবাসা… চলবে