অনৈতিক উত্থান

77

নূর এ সিকতা :
ওরা-
জীবনের দামে কিনতে শিখেছে,
প্রমত্ত বিলাসিতার এক আকাশ সলীল
নির্মমতার দাবানল হতে সুপ্তোত্থিত পিশাচ;
একাত্তরের এতো বছর পর-
চারা হতে আজ পূর্ণাঙ্গ বিষবৃক্ষসম কূলঙ্কষ মহীরুহ।

নরকের অগ্নি হতে-
ক্রোধ সঞ্চারিত রক্তাভ চোখে খুঁজে ধ্বংসাত্বক কামানের গোলা-বারুদ।
শান্তনু ভঙ্গিমায় আজও খেয়ে চলেছে- জননীর প্রাণ।
অন্ধকারের আলোয়ান জড়িয়ে – ওরা আজ সমাজ-বিধাতা।
গণ-সূর্যের গায়ে আঁধার মেখে দিয়ে হেসে উঠে-
ফেলে আসা সেই পাকি-পিশাচের হাসি।

ওরা-
রাতে উচ্ছ্বাসে ভরায় স্বচ্ছ কাঁচের পেয়ালায় ঝাঁঝালো হুইস্কি,
তৃপ্ত করে অবাধ্য শরীর মৃদুল রঙ্গিন আলোয়-
দিনে আলোতে আবদ্ধ করে স্যুট -কোটে অশুদ্ধ শরীর।

ওরা-
বজ্র কণ্ঠের দামামা বাঁজায় মুক্তির গান
হস্তে খড়গ দিয়ে স্নান করে রক্ত-পিয়াসু মন,
ক্ষমতার দ্বন্দ্বে পুঁড়ে ফেলে জননীর হৃদয়।

ওরা রক্তচোষক-
টাকার গন্ধে মাদুল বাঁজায় জন্মভূমির বুক,
মুখে জন দরদী স্লোগানের কাকডাকা চিৎকার
লোকচক্ষুর আড়ালে ভক্ষণ করে অসহায় মানুষের রক্ত দিয়ে কেনা-
একখন্ড পাললিক ভূমি।।